২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জামানতের টাকা ফেরত চাওয়ায় ব্যবসায়ীকে বেঁধে পেটাল বিএনপি নেতা

নিজস্ব সংবাদদাতা, লালমনিরহাট, ৬ অক্টোবর ॥ দোকান ঘরের জামানতের টাকা ফেরত চাওয়ায় এক বৃদ্ধ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীকে ঘরে আটকে রেখে রশি দিয়ে বেঁধে পেটালেন জাপার সাবেক এমপি জয়নাল আবেদিনের পুত্র বিএনপি নেতা সায়েদুজ্জামান কোয়েল। ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী নূরুন্নবী (৬৫) গুরুতর আহত অবস্থায় দু’দিন ধরে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

হাতীবান্ধা উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা বাজারে মাত্র আট হাজার টাকা জামনতে মাসিক পাঁচ শত টাকা ভাড়ায় ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী নূরুন্নবী (৬৫) ব্যবসা করে আসছিল। সম্প্রতি তার ব্যবসায় মন্দা দেখা দেয়। তাই তিনি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের স্থান পরিবর্তন করেন। সাবেক এমপি পুত্র বিএনপি নেতা সায়েদুজ্জামান কোয়েলের কাছে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী দোকানের জামানত হিসেবে গচ্ছিত আট হাজার টাকা ফেরত চান। কিন্তু টাকা ফেরত দিতে নানা অজুহাত দাঁড় করায় কোয়েল। বিষয়টি মুক্তিযোদ্ধা বাজার সমিতি নেতাদের অবহিত করেন ব্যবসায়ী নরুন্নবী। এতেই ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে বিএনপি নেতা কোয়েল। তিনি বৃদ্ধ ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী নূরুন্নবী তার লোকজনকে দিয়ে ধরে নিয়ে যান। তাকে ঘরে আটকে রশি দিয়ে বেঁধে রেখে কয়েক ঘণ্টা ধরে পেটায়। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে। বর্তমানে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তার চিকিৎসা চলছে। চিকিৎসকরা জানান, বৃদ্ধ বয়সে শারীরিক নির্যাতনে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন তিনি। তার সেরে উঠতে সময় লাগবে।

হাতীবান্ধা ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মনোয়ার হোসেন দুলু জানান, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীর অভিযোগের ভিত্তিতে বিএনপি নেতা সায়েদুজ্জামান কোয়েলকে জামানতের গচ্ছিত অর্থ ফেরত দিতে অনুরোধ করা হয়েছিল। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বৃদ্ধ ব্যবসায়ীকে নির্যাতন করেছে। এ ব্যাপারে আইনের আশ্রয় নেয়া হয়েছে। বিএনপি নেতা সায়েদুজ্জামান কোয়েল জানান, আমি বৃদ্ধ ব্যবসায়ীকে ডেকে জিজ্ঞেস করেছি কার প্ররোচনায় ব্যবসায়ী সমিতিতে অভিযোগ করা হয়েছে। পেটানোর ঘটনাটি অস্বীকার করেন তিনি।

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আব্দুল মতিন জানান, ব্যবসায়ীকে নির্যাতনের ঘটনাটি শুনেছি। অভিযোগ পেলে আইনী ব্যবস্থা নেয়া হবে।