২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দৌলতপুরে আ’ লীগ নেতার বিএনপি প্রীতি ॥ দলীয় কর্মী নির্যাতন

নিজস্ব সংবাদদাতা, দৌলতপুর, কুষ্টিয়া, ৬ অক্টোবর ॥ দৌলতপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের স্বঘোষিত শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক সাদিকুজ্জামান খান সুমনের বিরুদ্ধে বিএনপিপ্রীতি সন্ত্রাসী ও দলীয় নেতাকর্মীদের নির্যাতনের অভিযোগ তুলে সংবাদ সম্মেলন করেছে ভুক্তভোগী ও দলীয় নেতারা। মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৪টায় উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রধান কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে লিখিত বক্তব্য দেন সুমনের নির্যাতনের শিকার শেখ ফজিলাতুনন্নেছা মুজিব মহিলা কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ আব্দুল্লাহ আল আজম বিকো।

তিনি লিখিত বক্তব্যে সাংবাদিকদের জানান, আমরা আওয়ামী লীগের কর্মী সমর্থক। আমরা ২০০১ সালে জাতীয় নির্বাচনের পর বিএনপি দ্বারা নির্যাতিত পরিবার। আমরা ২০০১ সালের ১ অক্টোবরের পর মিথ্যা মামলা ও নির্যাতনে এলাকা ছেড়ে ফেরারি হয়েছিলাম। সেই সময় তৎকালীন প্রতিমন্ত্রী আহসানুল হক পঁচা মোল্লা, তার ছেলে বাচ্চু মোল্লা ও বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মঙ্গল সরকারের অত্যাচার ও যে সব বিএনপি ক্যাডার দ্বারা নির্যাতিত হয়ে এলাকা ছেড়েছিলাম, সময়ের ব্যবধানে তারাই এখন আওয়ামী লীগ সেজে পরীক্ষিত ত্যাগী নেতা কর্মীদের ওপর অত্যাচার, নির্যাতন ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। আওয়ামী লীগের নাম ভাঙিয়ে বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মঙ্গল সরকারের আপন ভাগ্নে ও বিএনপি নেতা বিষু সরকারের জামাই সাদিকুজ্জামান সুমন খান এখন আওয়ামী লীগের পরীক্ষিত ত্যাগী নেতা কর্মীদের ওপর অত্যাচার, নির্যাতন ও মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানি করছে। আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের বাড়িঘর লুটপাট করছে, আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দিচ্ছে, প্রশাসনের কাছে গিয়ে আমরা এর কোন প্রতিকার পাচ্ছি না। সাদিকুজ্জামান সুমন খান নিজেই বিভিন্ন অপরাধকর্ম করলে ও পুলিশ তার বিরুদ্ধে মামলা নেয় না।

রূপগঞ্জে শিক্ষককে অপহরণের পর মুক্তিপণ দাবি

নিজস্ব সংবাদদাতা, রূপগঞ্জ, ৬ অক্টোবর ॥ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে মিজানুর রহমান (৩৮) নামে এক শিক্ষককে অপহরণের পর মুক্তিপণ দাবি করেছে অপহরণকারীরা। মঙ্গলবার সকালে উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভার চাঁন টেক্সটাইল এলাকার এশিয়ান হাইওয়ে (বাইপাস) সড়ক থেকে অপহরণের পর বিকেলে মুক্তিপণ দাবি করা হয়। মিজানুর রহমান ময়মনসিংহ জেলার মুক্তাগাছা উপজেলার নটাকুড়ী এলাকার নোয়াব আলীর ছেলে। তিনি উপজেলার কাঞ্চন পৌরসভার আশরাফ জুট মিল আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসেবে কর্মরত আছেন।

পতœীতলায় স্কুলের ল্যাপটপ ও প্রজেক্টর চুরি

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ, ৬ অক্টোবর ॥ পতœীতলা উপজেলার নজিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সরকারী ল্যাপটপ, প্রজেক্টর, মাইকের এম্পলিফায়ারসহ নানা সরঞ্জামাদি চুরি গেছে। এমন রহস্যজনকভাবে চুরির ঘটনায় বিদ্যালয়ের অন্যান্য মূল্যবান জিনিসপত্রসহ সরকারী বই-পুস্তক সংরক্ষণে সংশয় দেখা দিয়েছে। ঘটনায় এলাকাবাসীসহ অভিভাবক মহলে নানা প্রশ্নের উদ্রেক হয়েছে।

জানা গেছে, নজিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য সরকারীভাবে দেয়া শিক্ষা উপকরণ কম্পিউটার, ল্যাপটপ, প্রজেক্টরসহ নানা সরঞ্জামাদি দেয়া হয়। কিন্তু বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারণে শিক্ষা উপকরণের ব্যবহার থেকে শিক্ষার্থীরা বঞ্চিত হয়ে আসছে শুরু থেকেই। এসব উপকরণ বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ অরক্ষিত অবস্থায় ফেলে রাখায় সরকারীভাবে পাওয়া বেশিরভাগ কম্পিউটারগুলো আজ নষ্ট হয়ে গেছে। ইতোমধ্যেই অরক্ষিত এসব মূল্যবান শিক্ষা উপকরণ রহস্যজনকভাবে চুরি হয়েছে বলে স্কুল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে। এলাকাবাসী ও অভিভাবক মহল এই চুরির ঘটনাকে রহস্যজনক বলে দাবি করছে। এ ব্যাপারে নজিপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোফাজ্জল হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, এ বিষয়ে থানায় জিডি করা হয়েছে।

ফরিদপুরে ব্যবসায়ীর বাড়িতে ডাকাতি, লুট

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর, ৬ অক্টোবর ॥ ফরিদপুরে এক ব্যাবসায়ীর বাড়িতে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। মুখোশ পরিহিত দুই অস্ত্রধারী ব্যবসায়ীর স্ত্রীকে কুপিয়ে আহত করে তার মুখ ও হাত বেঁধে আলমারি খুলে ছয় লাখ টাকা নিয়ে যায়। মঙ্গলবার এই ব্যবসায়ী মামলার জন্য কোতোয়ালি থানায় যান। সোমবার সন্ধ্যা ছয়টার দিকে ডাকাতির ঘটনা ঘটে ফরিদপুর সদরের কানাইপুর ইউনিয়নের ভাটি কানাইপুর গ্রামের বাসিন্দা পাট ব্যবসায়ী বিষ্ণু দাসের বাড়িতে।