১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিদেশী পর্যটকরা এদেশ থেকে তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে গেলে হিতে বিপরীত হবে

  • সম্পাদকদের সঙ্গে মতবিনিময়

স্টাফ রিপোর্টার ॥ নিরাপত্তা, যোগাযোগ ব্যবস্থা ও থাকা খাওয়ার সুব্যবস্থা নিশ্চিত করা না গেলে আসন্ন বৌদ্ধ সম্মেলন ও পর্যটন বর্ষ -২০১৬ সফল করা কঠিন হয়ে যাবে। শুধু সভা সমিতি আর সেমিনার করে এত বিশাল কর্মযজ্ঞ সামাল দেয়া যাবে না। বহির্বিশ্বের লাখ লাখ পর্যটক এসে এদেশ থেকে যদি তিক্ত অভিজ্ঞতা নিয়ে যায় তাহলে হিতে বিপরীত হবে।

আসন্ন বৌদ্ধ পর্যটন সম্মেলন ও ভিজিট বাংলাদেশ কর্মসূচী উপলক্ষে বেসামরিক বিমান ও পর্যটন মন্ত্রী রাশেদ খান মেননের সঙ্গে গণমাধ্যম সম্পাদকদের এক মতবিনিময় সভায় এ ধরনের বক্তব্য উঠে আসে।

মঙ্গলবার রাজধানীর হোটেল অবকাশে অনুষ্ঠিত সভায় বাংলাদেশ ট্যুরিষ্ট বোর্ডের সভাপতি আখতার কবির খান একটি এ্যাকশন প্ল্যান উপস্থাপন করেন। তাতে আগামী ২৭ -২৮ অক্টোবর তিন দিনব্যাপী বৌদ্ধ পর্যটক সম্মেলনে দক্ষিণ এশিয়ার বিখ্যাত বুদ্ধিস্ট ভ্রমণ-সার্কিটগুলোর স্েঙ্গ বাংলাদেশের সম্পৃক্ত করার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বাংলাদেশের ট্যুরিস্ট বোর্ড, পর্যটন কর্পোরেশন ও বিমান মন্ত্রণালয় যৌথভাবে এ সম্মেলনের আয়োজন করবে। এতেই প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দেবেন পর্যটন বর্ষ-২০১৬। যাতে থাকবে আগামী তিন বছর ধরে বিশ্বব্যাপী পর্যটক ধরার দীর্ঘমেয়াদী কর্মসূচী।

মতবিনিময় সভায় সম্পাদক মাহফুজ আনাম বলেন, গোলাম সারওয়ার, আব্দুল কাইয়ুম, নাইমুল ইসলাম খান, তৌফিক ইমরোজ খালিদী ও শাইখ সিরাজ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।