২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

এমপি লিটনের কাছ থেকে চিকিৎসার টাকা নিতে অস্বীকৃতি সৌরভের পিতার

  • গণস্বাক্ষরের ব্যানার নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা, ৭ অক্টোবর ॥ দরিদ্র অসহায় শিশুকে পিস্তলের গুলি ছোড়ে আহত করার ঘটনায় মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের সংসদ সদস্য পদ বাতিল, অবিলম্বে তাকে গ্রেফতার এবং তার বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে মঙ্গলবার থেকে লাগাতার সুন্দরগঞ্জের বঙ্গবন্ধু চত্বরে গণস্বাক্ষরের অভিযান শুরু করা হয়। কিন্তু মঙ্গলবার রাতে বঙ্গবন্ধু চত্বর থেকে গণস্বাক্ষরিত কাপড়ের ব্যানারগুলো কে বা কারা সরিয়ে নিয়ে গেছে। ফলে ওই কর্মসূচী বন্ধ হয়ে গেছে। উল্লেখ্য, পৌর নাগরিক সংগ্রাম পরিষদ, আ’লীগের একাংশ ও স্থানীয় জনতার উদ্যোগে গণস্বাক্ষর কর্মসূচী শুরু হয়েছিল এবং সুন্দরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি এবিএম মকবুল হোসেন কর্মসূচীটির উদ্বোধন করেন।

এদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাতিসংঘের পুরস্কার অর্জন এবং এমপি লিটনের শিশুর প্রতি সহিংসতার জন্য প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেয়ায় অভিনন্দন জানাতে সুন্দরগঞ্জের নাশকতা ও সন্ত্রাস প্রতিরোধ কমিটি বুধবার সুন্দরগঞ্জের বামনডাঙ্গা রেল স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় সমাবেশের আয়োজন করেছিল বুধবার দুপুর ১২টায়। স্টেশনের পূর্ব পাশে আয়োজক দল এবং পশ্চিম পাশে রেল স্টেশন সংলগ্ন এমপি লিটনের অফিস এলাকায় লিটনের লোকজন এই কর্মসূচীকে কেন্দ্র করে সংঘবদ্ধ হয়েছিল। কিন্তু পুলিশ বাধা দেয়ায় এ খবর লেখা পর্যন্ত তা ভ-ুল হয়ে যায়। আয়োজক কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক বিষ্ণুরাম দাস জানান, এর আগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় প্রচারের মাইক বন্ধ করে দেয় পুলিশ।

এ ব্যাপারে সুন্দরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ ইসরাইল হোসেনের সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বললে তিনি জানান, এই থানাটি মূলত জামায়াত-শিবির অধ্যুষিত এলাকা। সুতরাং মিছিল মিটিং সমাবেশকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের মধ্যে দুটি গ্রুপ ছাড়াও জামায়াত-শিবির চক্র তাতে জড়িয়ে পড়ে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটাতে পারে বলে আশঙ্কা করেই সকল পক্ষকেই এই ইস্যু নিয়ে মিছিল মিটিং বা সহিংস কোন কর্মসূচী থেকে বিরত থাকতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। বাধা দেয়ার অভিযোগটি আসলে সত্য নয়।

এদিকে এমপি লিটনের ঘোষণা মোতাবেক পিস্তলের গুলিতে আহত সাজু মিয়ার পুত্র ওই দরিদ্র শিশু সৌরভের চিকিৎসা বাবদ প্রাথমিক পর্যায়ে ১০ হাজার টাকা প্রদানের জন্য এমপির নিকট আত্মীয়ের পক্ষ থেকে একজন মহিলা মঙ্গলবার রাতে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে গিয়েছিলেন। এ সময় টাকা দেয়ার বিষয়টি তারা ভিডিও ক্যামেরায় ধারণ করে নেয়ারও ইচ্ছা পোষণ করেন। কিন্তু সৌরভের বাবা সাজু মিয়া তার সন্তানের চিকিৎসা বাবদ এমপি লিটনের কাছ থেকে কোন অর্থ নিতে অস্বীকৃতি জানান।

সাজু মিয়া রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে গাইবান্ধার সাংবাদিকদের মোবাইল ফোনে জানিয়েছেন, জনগণের সহায়তায় তার সন্তানের সুচিকিৎসা হবে ইন্শাআল্লাহ। যে তার সন্তানকে বিনা অপরাধে পিস্তল দিয়ে গুলি করে আহত করেছে তার কাছে সাহায্য নেয়ার প্রশ্ন আসে না। এদিকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সৌরভের চিকিৎসার ৬ দিন অতিক্রান্ত হলেও সে তার ডান পা এখন সামান্য নড়াচড়া করতে পারলেও বাম পাটি এখনও নড়াতে পারছে না। তবে চিকিৎসকরা বলছেন, সৌরভ শীঘ্রই সুস্থ হয়ে উঠবে।

এমপি লিটনের সমর্থনে বিক্ষোভ, মিছিলে পুলিশে বাধা ॥ এমপি লিটনের সমর্থনে এবং জামায়াত-শিবিরের নৈরাজ্যের প্রতিবাদে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা আ’লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও মহিলা লীগের উদ্যোগে বুধবার বিকেলে বিক্ষোভ মিছিল সুন্দরগঞ্জ মহিলা কলেজ থেকে বের হয়ে কাঁঠালতলী মোড়ে পৌঁছায়। পুলিশ মিছিলে বাধা দেয়। ফলে মিছিলকারীরা সেখানেই সমাবেশ করে।