২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

লিভারপুলের কোচ হচ্ছেন ক্লপ!

  • তিন বছরের চুক্তি, শুক্রবারই আনুষ্ঠানিক ঘোষণা, এখনই কোচিংয়ে ফিরছেন না আনচেলত্তি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ জার্গেন ক্লপ নাকি কার্লো আনচেলত্তি? কে হবেন লিভারপুলের নতুন কোচ। ব্রেন্ডন রজার্সকে বরখাস্ত করার পর থেকেই ভেসে উঠা নামগুলোর তালিকার সবার উপরে অবস্থান তাদের। তবে সবকিছু ঠিক থাকলে কার্লো আনচেলত্তি নয়, অলরেডদের কোচ হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন জার্গেন ক্লপ। আসছে শুক্রবারই জার্মান কোচের সঙ্গে তিন বছরের চুক্তির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিতে পারে ইংলিশ জায়ান্টরা। আর চুক্তি সম্পন্ন করতে আজই ব্যক্তিগত জেট বিমান যোগে লিভারপুলের উদ্দেশে উড়াল দেবেন সাবেক বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের এই কোচ। অন্তত গত দুই দিনে সংবাদ মাধ্যমগুলোতে উঠে আসা প্রতিবেদনের পর্যবেক্ষণ এইসব কথাই বলছে।

নতুন মৌসুমের শুরুতেই বাজে পারফর্মেন্সের কারণে ব্রেন্ডন রজার্সকে কোচের পদ থেকে বরখাস্ত করে লিভারপুল। এরপরই অলরেডদের নতুন কোচের জন্য জার্গেন ক্লপ ও কার্লো আনচেলত্তির নাম উঠে আসে। তবে শেষ পর্যন্ত এ্যানফিল্ডে নতুন করে চুক্তিবদ্ধ হতে যাচ্ছেন ক্লপই। আর সাবেক বরুশিয়ার এই কোচ লিভারপুলের দায়িত্ব গ্রহণ করলে তার দুই বিশ্বস্ত সহকারী জেলিকো বুভাক ও পিটার ক্রাউইটজও ক্লপের সঙ্গে যোগ দিতে পারেন। কেননা ক্লপের দীর্ঘ ১৪ বছরের কোচিং ক্যারিয়ারজুড়ে এ দুইজন তারই সহকারী হিসেবে কাজ করে এসেছেন। খেলোয়াড়ি জীবনের পুরোটাই জার্মান বুন্দেসলিগার ক্লাব মেইঞ্জের হয়ে কাটান ক্লপ। ২০০১ সালে তিনি শৈশবের ক্লাবের হয়েই কোচিং ক্যারিয়ারে পা দেন। এরপর ২০০৮-১৫ মৌসুম পর্যন্ত বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের কোচের দায়িত্বে থাকেন তিনি। তার অধীনে দুটি বুন্দেসলিগা, একটি জার্মান কাপ ও দুটি জার্মান সুপার কাপের শিরোপা জিতে বরুশিয়া। আর ২০১২-১৩ মৌসুমে নিজেদের ক্লাব ইতিহাসে প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়নস লীগের ফাইনালে উঠে তারা। কিন্তু চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী বেয়ার্ন মিউনিখের কাছে হেরে তাদের স্বপ্নভঙ্গ হয়।

কিন্তু গত মৌসুমের শেষে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন হয়ে যায় তার। তারও আগে রিয়াল মাদ্রিদের কোচের পদ হারান কার্লো আনচেলত্তি। এরপর থেকেই অলস সময় পার করছেন ইতালিয়ান কোচ। সম্প্রতি ব্রেন্ডন রজার্সকে ছাটাইয়ের পরই আলোচনায় উঠে আসেন সাবেক হয়ে যাওয়া দুই কোচ। তবে বরুশিয়া ডর্টমুন্ড কোচ ক্লপই হতে যাচ্ছেন ব্রেন্ডন রজার্সের উত্তরসূরি। অবশ্য, আনচেলত্তিরও এ মৌসুমে কোচ হয়ে ফেরার কোন ইচ্ছা নেই। আপাতত এক বছরের বিরতি নিচ্ছেন তিনি। তাই ছুটি শেষে আগামী মৌসুমেই কোচিং পেশায় ফেরার প্রবল আগ্রহ তার। এ বিষয়ে এক সাক্ষাতকারে আনচেলত্তি বলেন, ‘আমি বর্তমান সময়টা বেশ উপভোগ করছি। কিন্তু অবশ্যই কোচিং ভূমিকায় ফিরতে চাই। কারণ, এটিই আমার পেশা। এখন নিজেকে বিশ্রামে রাখছি। আর আগামী মৌসুমের জন্য এখন থেকেই প্রস্তুতি নিচ্ছি আমি।’ উল্লেখ্য, স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়াও বিশ্বের বেশ কিছু সেরা সেরা লীগের সেরা সব ক্লাবের দায়িত্ব পালনের অভিজ্ঞতা রয়েছে আনচেলত্তির। তার মধ্যে ইতালিয়ান সিরি এ লীগের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস, এসি মিলান। ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের চেলসি এবং ফ্রেঞ্চ লীগ ওয়ানের ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেইর (পিএসজি) মতো বিশ্বসেরা ক্লাবের কোচের দায়িত্বে ছিলেন আনচেলত্তি। তাই যে কোন ক্লাবই এমন অভিজ্ঞ কোচের ওপর ভরসা রাখতেই পারে!