১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কামরুলকে দেশে ফিরিয়ে আনতে পুলিশ যাচ্ছে সৌদি আরব

কামরুলকে দেশে ফিরিয়ে আনতে পুলিশ যাচ্ছে সৌদি আরব

অনলাইন ডেস্ক॥ বাংলাদেশের সিলেটে শিশু রাজন হত্যা মামলার প্রধান আসামি কামরুল ইসলামকে দেশে ফিরিয়ে আনতে পুলিশের একটি দল ১২ অক্টোবর সৌদি আরব যাচ্ছে।

বাংলাদেশ ও সৌদি আরবের মধ্যে বন্দি বিনিময় চুক্তি না থাকলেও, দুই দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে এই প্রক্রিয়া চলছে। পুলিশের সহকারী মহাপরিদর্শক নজরুল ইসলাম বিবিসি বাংলাকে জানিয়েছেন তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি দল সৌদি আরবে যাবে ১২ তারিখে। মি. ইসলাম বলেন “১৩ বা ১৪ তারিখের মধ্যে কামরুল ইসলামকে দেশে ফিরিয়ে আনতে সক্ষম হবে তারা।“ একদিকে পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের উদ্যোগ এবং অন্যদিকে ইন্টারপোলের মাধ্যমে যোগাযোগের প্রেক্ষিতে উভয় সরকারের সম্মত্তিক্রমে হচ্ছে বিষয়টি।

মি. ইসলাম জানান বন্দি বিনিময় চুক্তি না থাকায় উভয় সরকারের মধ্যে যোগাযোগ এবং আন্তর্জাতিক নিয়মনীতি মেনে আনতে হচ্ছে, সেটা একটা লম্বা প্রক্রিয়া তাই এই দেরি হচ্ছে।

বাকি যে দুইজন পলাতক আছে তাদের গ্রেফতারে সনাতনী ও প্রযুক্তিগত দুধরণের পদ্ধতি অবলম্বন করা হচ্ছে বলে উল্লেখ করেন পুলিশের এই কর্মকর্তা। এর আগে রাজন হত্যা মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয় পহেলা অক্টোবর।

তবে এই মামলার প্রধান অভিযুক্ত কামরুল ইসলাম সৌদি আরবে অবস্থান করায় তার অনুপস্থিতিতেই এই বিচারকাজ চলছে।

রাজনকে খুঁটির সাথে বেধে পিটিয়ে নির্যাতন ও হত্যা এবং পরে ইন্টারনেটে তার ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার পর সেটা নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়।

রাজন হত্যা মামলায় মোট অভিযুক্ত ১৩ জন। গত ২২ শে সেপ্টেম্বর তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে সিলেটের মহানগর দায়রা জজ আদালত।

সূত্র : বিবিসি বাংলা