২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চট্টগ্রামে দুই দিনব্যাপী পুঁজিবাজার মেলা শুরু

  • আগ্রহ ও সচেতনতা সৃষ্টিই মূল লক্ষ্য

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রামে বৃহস্পতিবার শুরু হয়েছে দু’দিনব্যাপী পুঁজিবাজার মেলা। নগরীর জিইসি কনভেনশন হলে মেলা উদ্বোধন করেন সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম খায়রুল হোসেন। চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের আয়োজনে এটি ৫ম পুঁজিবাজার মেলা। এতে অংশগ্রহণ করেছে বিভিন্ন স্টেকহোল্ডার ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলো। পুঁজিবাজার সম্পর্কে আগ্রহী সাধারণ মানুষকে ধারণা দিতেই এ মেলার আয়োজন।

সিকিউরিটিজ এক্সচেঞ্জ কমিশনের চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেন প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, এ মেলার মাধ্যমে পুঁজিবাজারের প্রতি সাধারণ মানুষের আগ্রহ এবং একই সঙ্গে আগ্রহীরা স্টক মার্কেট সম্পর্কে সম্যক ধারণা লাভে সক্ষম হবেন। তিনি বলেন, সিএসই বিশ বছর পূর্তিতে এমন একটি আয়োজন মেলার উৎসব আমেজকে বাড়িয়ে দিয়েছে। চট্টগ্রামের এ পুঁজিবাজার মেলা ফলপ্রসূ হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি বলেন, নতুন নতুন শিল্প প্রতিষ্ঠা ও পুঁজি গঠনে পুঁজিবাজার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে।

সিএসই’র চেয়ারম্যান ড. আবদুল মজিদের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন কমিশনের সদস্য অধ্যাপক হেলাল উদ্দিন নিজামী ও সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি অব বাংলাদেশের (সিডিবিএল) চেয়ারম্যান শেখ কবির হোসেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিএসই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওয়ালিউল মারুফ মতিন। মেলায় মোট ৯৮টি স্টল স্থান পায়। প্রতিদিন সকাল দশটা থেকে রাত আটটা পর্যন্ত আগ্রহীদের জন্য মেলাঙ্গন উন্মুক্ত থাকবে। মেলার তত্ত্বাবধানের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট রয়েছেন সিএসই, স্টেকহোল্ডার এবং বিভিন্ন তালিকাভুক্ত প্রতিষ্ঠানের প্রায় দুই শ’ বিশেষজ্ঞ পর্যায়ের কর্মকর্তা। মেলার পৃষ্ঠপোষকতায় রয়েছে গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স, বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেম, বিএসআরএম, সিভিও পেট্রোকেমিক্যাল, এসআলম গ্রুপ এবং ক্রাউন্ড সিমেন্ট।

চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ সূত্রে জানানো হয়, মেলা থেকে সাধারণ মানুষ পুঁজিবাজার সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য পাবেন। বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর পাওয়া যাবে সরাসরি। এতে ‘এক্সচেঞ্জ ট্রেডেড ফান্ড’, ‘এ নিউ ইনভেস্টমেন্ট প্রোডাক্ট ইন বাংলাদেশ’, ‘পার্সোনাল পোর্ট পোলিও ম্যানেজমেন্ট ও অপরচ্যুনিটিজ অব ইনিশিয়াল পাবলিক অফারিং’ এবং ক্যাপিট্যাল মার্কেট রিফর্মস-রিসেন্ট-ফার্স্ট এ্যান্ড ফিউচার’ শীর্ষক চারটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হবে।

বিশেষজ্ঞদের বক্তব্যে সিকিউরিটিজ এক্সচেঞ্জ কমিশনের সদস্য হেলাল উদ্দিন নিজামী বলেন, মেলার মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে উৎসাহ উদ্দীপনার সৃষ্টি হবে। ব্যাংকে আমানতের সুদের হার কমে আসায় সাধারণ মানুষ পুঁজিবাজারের প্রতি আকৃষ্ট হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এসইসি সদস্য শেখ কবির হোসেন বলেন, এ মেলার মাধ্যমে বিনিয়োগকারীরা অনেক কিছু জানতে পারবে। তিনি বলেন, পুঁজিবাজার সম্পর্কে এক সময় মানুষের ধারণা না থাকলেও ধীরে ধীরে আগ্রহ বাড়ছে। সিএসই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক মারুক মতিন তার বক্তব্যে পুঁজিবাজারের উন্নয়নে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ কাজ করে যাচ্ছে বলে উল্লেখ করে বলেন, বিনিয়োগকারীদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি করা সবচেয়ে জরুরী। অর্থ বিনিয়োগের জন্য এর কোন বিকল্প নেই। এ বিষয়টি বিবেচনায় রেখে বিনিয়োগকারীদের সচেতন করে তুলতে সিএসই বদ্ধপরিকর।