১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দেশের উন্নয়ন করতে হলে জনগণের উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হবে

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ জাতীয় আয় বৃদ্ধির লক্ষ্যকে সামনে রেখে শুধুমাত্র প্রবৃদ্ধি নির্ভর অর্থনৈতিক কর্মকা- প্রত্যাশিত নয়। প্রবৃদ্ধি ও দেশের উন্নয়ন দুটো সম্পূর্ণ পৃথক ধারণা। দেশের প্রকৃত উন্নয়ন করতে হলে জনগণের সার্বিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে হবে বলে মত দিয়েছেন বক্তারা।

তাদের মতে, জনগণের জীবন-মান উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রবৃদ্ধির পুনঃবণ্টন ও বিনিয়োগের দিকে নজর দিতে হবে। তাহলেই বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশের পাশাপাশি মধ্যম মানের জীবনযাত্রাও নিশ্চিত হবে। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে ‘শুধু মধ্যম আয়ের দেশ নয় বরং মধ্যম ও উন্নত মানের জীবন যাত্রার দেশ চাই’ শীর্ষক সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন। ইক্যুইটিবিডি আয়োজিত এ সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান। সেমিনারে ইক্যুইটিবিডির কো-অর্ডিনেটর জিয়াউল হক মুক্তা বলেন, ‘গত ৪০ বছরে দরিদ্রতা দূরীকরণে আমরা যে সম্পদ বিনিয়োগ করেছি তাতে কাক্সিক্ষত ফল পাওয়া যায়নি। মধ্যম আয়ের দেশ হলে গরিব মানুষের কোন উন্নতি হবে কিনা তা নিয়ে সংশয় রয়েছে। কারণ দেশে ভূমিহীনের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। তা ছাড়া জনসংখ্যা হ্রাসের যে প্রকল্প সরকার হাতে নিয়েছে তারও কোন প্রতিফলন পাওয়া যায়নি।’ এ সময় প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত করতে বর্তমান সরকার বদ্ধপরিকর। দেশের প্রধান কয়েকটি সমস্যার মধ্যে একটি হলো দরিদ্রতা।

আর দরিদ্রতা দূরীকরণে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।’ কোস্ট ট্রাস্ট্রের সভাপতি রেজাউল করিম চৌধুরীর সভাপতিত্বে সেমিনারে এলডিসি ওয়াটের কো-অর্ডিনেটর গৌরি প্রধান ও এ্যাডভোকেসি কো-অর্ডিনেটর প্রেমা বোমজান উপস্থিত ছিলেন।