২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

যতদিন উপভোগ করব ততোদিন খেলব ॥ যুবরাজ

  • পুনরায় জাতীয় দলে ফেরার স্বপ্ন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সর্বশেষ গত বছর টি২০ বিশ্বকাপে খেলেছিলেন যুবরাজ। এছাড়া আর তিন ফরমেটের কোন ক্রিকেটেই খেলেননি যুবরাজ সিং। ৩৩ বছর বয়সী ভারতীয় এ অলরাউন্ডারের আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শেষ হওয়ার পথে সেটা বেশ ভালই বোঝা যাচ্ছে। কিন্তু এরপরও ভারতীয় দলে ফেরার স্বপ্নটা এখনও রয়ে গেছে। এখনই খেলা ছাড়তে চান না তিনি। কারণ ক্রিকেট যথেষ্ট উপভোগ করছেন এখনও। আর এ উপভোগের বিষয়টি যতদিন থাকবে ততোদিন খেলে যাবেন।

ভয়ালব্যাধি ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়েছিলেন ভারতীয় দলের এক সময় অপরিহার্য ক্রিকেটার যুবরাজ। তবে ফুসফুসকে আক্রান্ত করা সে ভয়ালব্যাধিকে জয় করে ঠিকই আবার ফিরে এসেছিলেন ক্রিকেটে। ফেরাটা দারুণভাবে হলেও নিজেকে বেশিদিন ভালভাবে মেলে ধরতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত দল থেকে ছিটকেই পড়তে হলো তাকে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বশেষ তাকে দেখা গেছে গত বছর এপ্রিলে। বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত টি২০ বিশ্বকাপে খেলেছিলেন। কিন্তু ক্যান্সারজয়ী এ অলরাউন্ডার অবশ্য টেস্ট দলে ফিরতে পারেননি। ২০১২ সালেই টেস্ট অভিযান শেষ হয়েছে ৪০ ম্যাচ খেলা এ ক্রিকেটারের। তবে ওয়ানডে দলেও ফিরেছিলেন। কিন্তু সেটা ২০১৩ সালের ডিসেম্বরে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরেই শেষ হয়ে গেছে। অর্থাৎ প্রায় দু’বছর হতে চললো ওয়ানডে দলের বাইরে যুবরাজ। তবে কি টিম ইন্ডিয়ার সদস্য হওয়া সম্ভব হবে না আর? ক্রিকেট ক্যারিয়ারেই হয়তো সেক্ষেত্রে ইতি টানবেন এ অলরাউন্ডার। এ বিষয়ে যুবরাজ বলেন, ‘আমি ক্রিকেট ভেলা উপভোগ করি এবং ছোটবেলা থেকেই এটা ছিল আমার বিশেষ অনুরাগ। সুতরাং যতদিন আমি এটা উপভোগ করে যাব ততোদিন পর্যন্ত খেলেও যাব।’

যুবরাজ সিং বর্তমানে রঞ্জি ট্রফি খেলতে ব্যস্ত। তবে এ আসরেও সুবিধা করতে পারছেন বিষয়টা তেমন নয়। কিন্তু ক্রিকেটের প্রতি টানটা একটুও কমেনি আগামী ডিসেম্বরে ৩৪ ছুঁতে যাওয়া যুবরাজের। তিনি বলেন, ‘আমি শুধু খেলে যেতে চাই এবং উপভোগ করে যেতে চাই। আমি যদি ফিরে আসার কোন সুযোগ পাই এবং ভারতের হয়ে খেলার সুযোগ পাই সেজন্য চেষ্টা করেই যাব। আর সেদিকেই আমার মনোযোগ। তবে এখন যে ম্যাচগুলো খেলব সেসবই হচ্ছে এই স্বপ্ন আবার সত্য হওয়ার ক্ষেত্রে অন্যতম পরীক্ষা। আমি সেজন্য আমার সর্বোচ্চ চেষ্টাই করব।’ ২০০৭ টি২০ বিশ্বকাপ ও ২০১১ ওয়ানডে বিশ্বকাপ জয়ী দলের অন্যতম ও অপরিহার্য সদস্য ছিলেন যুবরাজ। এখন তিনি আশায় আছেন আগামী বছর দেশের মাটিতে অনুষ্ঠিতব্য টি২০ বিশ্বকাপ দলে জায়গা করে নেয়ার। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘বিশ্বকাপ হচ্ছে মর্যাদার আসর, সেটা টি২০ হোক বা ওয়ানডে। আরেকটি বিশ্বকাপ খেলা অবশ্যই অনেক বড় মর্যাদার বিষয় হবে। কিন্তু আমি আপাতত অত দূরের ভবিষ্যত নিয়ে ভাবছি না। আমি এখন যে ম্যাচগুলো খেলব সেসবের প্রতিটা নিয়েই ভাবব। আমি কেমন খেলছি এবং কিভাবে আরও উন্নতি করা সম্ভব এসব নিয়েই ভাবতে হবে। আর এটাই এখন আমার লক্ষ্য।’

দীর্ঘদিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের বাইরে থাকার পরও আবার ফেরার চিন্তার জন্য চরম আত্মবিশ্বাস প্রয়োজন। এই অনুপ্রেরণাটা কিভাবে পান যুবরাজ? এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এটা শুধু খেলার প্রতি অনেক তীব্র আসক্তি থাকার কারণেই সম্ভব হয়েছে। আমি শচীনের সঙ্গে গত বছর কথা বলেছি। তিনি আমাকে বলেছেন যে অবশ্যই ভারতের হয়ে খেলাটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় কিন্তু কখনও খেলা উপভোগ করাটা ভুলো না। যেমন আমরা ছোট বাচ্চা থাকার সময় শুধু মজা পাওয়ার জন্যই ক্রিকেট খেলি, তখন এই চিন্তা থাকে না যে দেশের জার্সি গায়ে খেলব।’