২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আপীল ব্লাটারের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ৯০ দিনের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আপীল করেছেন সেপ ব্লাটার। শুক্রবার ব্লাটারের আইনজীবী আপীল করেছেন বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদামাধ্যম। ফিফা জানিয়েছে, দ্রুতই চলমান সঙ্কট থেকে বেরিয়ে আসবে ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থাটি। এ লক্ষ্যে কাজ করছে তারা। দ্রুতই সঙ্কট কেটে যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন ফিফার সাময়িক দায়িত্বে থাকা কর্তারা।

ফিফার এথিকস কমিটি বৃহস্পতিবার ৯০ দিনের জন্য সভাপতি ব্লাটার, মহাসচিব জেরোম ভাল্কে ও সহ-সভাপতি মিশেল প্লাতিনিকে বরখাস্ত করে। ফুটবল সংক্রান্ত সব ধরনের কার্যক্রম থেকে তারা নিষিদ্ধ থাকবেন এই সময়। এই কমিটি ব্লাটার, ভাল্কে ও উয়েফা প্রেসিডেন্ট প্লাতিনির বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে তদন্ত করছে। তিনজনই অবশ্য কোন ধরনের দুর্নীতিতে জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছেন। ব্লাটারের আপীলের একটি কপি পাওয়ার কথা জানিয়ে নিউইয়র্ক টাইমস জানিয়েছে, ১৯৯৮ সাল থেকে ফিফার সভাপতির পদে থাকা এই সুইস তার প্রতি করা রূঢ় ও অন্যায় আচরণ নিয়ে আপত্তি তোলেন। অবশ্য সুইজারল্যান্ড ও যুক্তরাষ্ট্রে ব্লাটারের আইনজীবীরা আপীলের বিষয়ে কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

এমন সঙ্কটে এর আগে কখনও পড়েনি ফিফা। গত মে মাস থেকে দুর্নীতি-অনিয়মের অভিযোগে জর্জরিত ফুটবলের সর্বোচ্চ সংস্থা এখন অনেকটাই নেতৃত্ববিহীন। সেপ ব্লাটার সাময়িকভাবে তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ হওয়ার পর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন আফ্রিকার ইসা হায়াতু। আগামী সপ্তাহে একটি জরুরী সভা আয়োজনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারে ফিফা। এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের (এএফসি) সভাপতি শেখ সালমান বিন ইব্রাহিম আল খলিফা শুক্রবার ফিফার ভারপ্রাপ্ত সভাপতির কাছে চিঠি লিখে নির্বাহী কমিটির বৈঠক আয়োজনের অনুরোধ করেছেন। আল খলিফা বলেছেন, আমরা একটা ব্যতিক্রমী পরিস্থিতির মুখে পড়েছি। এ জন্যই আমাদের বৈঠক করা দরকার। শুধু একসঙ্গে থাকতে পারলেই আমরা এই ধরনের সঙ্কটপূর্ণ পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসতে পারব। আগামী সপ্তাহে এই বৈঠক আয়োজনের বিষয়ে কমিটির অন্য সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা করে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন ইসা হায়াতু।

নিষিদ্ধ ব্লাটার অবশ্য চুপচাপ বসে থাকছেন না। এরই মধ্যে এই নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আনুষ্ঠানিক আবেদন করেছেন তিনি। ব্লাটারের বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ অস্বীকার করে এ বিষয়ে ফিফার নীতিনির্ধারক কমিটির কাগজপত্র দেখতে চেয়েছেন তার আইনজীবীরা।