১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কারাগারে মুজাহিদের সঙ্গে স্ত্রী ও সন্তানের সাক্ষাত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ যুদ্ধাপরাধী জামায়াত নেতা আলী আহসান মুহম্মদ মুজাহিদের সঙ্গে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে দেখা করেছেন তার পরিবারের সদস্যরা। সর্বোচ্চ আদালতের সাজা ফাঁসির রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করার জন্য আর ছয় দিন সময় রয়েছে যুদ্ধাপরাধী এই জামায়াত নেতার হাতে।

মুজাহিদের স্ত্রী তামান্না-ই-জাহান, তিন ছেলে আলী আহমেদ তাজজীদ, আলী আহমেদ তাহকীক ও আলী আহমেদ মাবরুর এবং মেয়ে তামরীন শুক্রবার বেলা পৌনে ১১টায় কারা ফটক দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করেন। আধা ঘণ্টা পর বেরিয়ে এসে মহিলা জামায়াতের শূরা সদস্য তামান্না দাবি করেন, আমার স্বামী অত্যন্ত সৎ। আমার দৃঢ় বিশ্বাস, উনি ন্যায়বিচার পাবেন এবং খালাস পেয়ে জেল থেকে বের হয়ে আসবেন। যুদ্ধাপরাধী মুজাহিদকে ‘সম্পূর্ণ নির্দোষ’ বলেও দাবি করেন তার স্ত্রী। এক প্রশ্নের জবাবে তামান্না বলেন, এটি ছিল তাদের নিয়মিত সাক্ষাত। গত মাসেও তারা এসেছিলেন। আপীল বিভাগের রায় পুনর্বিবেচনার আবেদন করার বিষয়টি আইনজীবীরা দেখছেন বলে জানান মুজাহিদের স্ত্রী। কারাগারের জ্যেষ্ঠ জেল সুপার মোঃ জাহাঙ্গীর কবির বলেন, নিয়মিত সাক্ষাতের অংশ হিসেবে তারা এসেছিলেন। পরিবারের পাঁচ সদস্য সকাল ১০টা ৫০ থেকে ১১টা ২০ পর্যন্ত মুজাহিদের সঙ্গে সাক্ষাত করেছেন। আপীল বিভাগ গত ৩০ সেপ্টেম্বর জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল মুজাহিদ ও বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর যুদ্ধাপরাধ মামলার চূড়ান্ত রায় প্রকাশ করলে পরদিন দুই আসামির বিরুদ্ধে মৃত্যু পরোয়ানা জারি করে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল।