২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কচি খুকির নোবেল প্রাপ্তি

  • দাউদ হায়দার

ইংরেজীর চেয়ে ভাল জার্মান বলেন এবং জার্মান সø্যাং-ও বলেন রসিয়ে, বেলারুশের সেভেতলানা আলেক্সিয়েভিচ ষাট দশকে (১৯৬৭-৬৯ ) জার্মান ভাষা শিখেছেন পূর্ব বার্লিনে। কমিউনিস্ট মুখপত্র দৈনিক ‘নয়েস ডয়েচল্যান্ড’-এ সাংবাদিকতাও করেছেন বছরখানেক। বেলারুশে ফিরে গিয়েও সাংবাদিকতা করেছেন কিছুকাল। সাংবাদিকতা ছাড়লেও লেখায় সাংবাদিকসুলভ গল্প-কথায় খামতি নেই। অবশ্য অনুসন্ধানমূলক। ‘অনুসন্ধানই আমার লেখার গভীরতা, চারদিকের ঘটনাবলী ছেঁকে এনে কাহিনীর বিস্তার। যুদ্ধ আমার প্রিয় বিষয়, যদিও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ দেখিনি তবে নিত্যদিনই তো দুনিয়াব্যাপী যুদ্ধ দেখছি।’ -বলছিলেন বার্লিনের ১৫তম আন্তর্জাতিক সাহিত্য উৎসবে ৮ সেপ্টেম্বর (৮-১৯ সেপ্টেম্বর), প্রথম দিনের সান্ধ্য আসরে। পড়ছিলেন গত বছর প্রকাশিত উপন্যাস থেকে, রুশ ভাষায়। হেডফোন কানে নিয়ে জার্মান অনুবাদ শুনছিলাম। পাঠশেষে শ্রোতার জার্মান প্রশ্নে জার্মান উত্তর, বেশ জমিয়ে, হেলে-দুলে, হেসে-হেসে। মজা করে বললেন, খুব গুরুগম্ভীর কথা বলতে গেলে জিভ জড়িয়ে আসে।

উৎসবের দ্বিতীয় প্রেক্ষাগৃহে (ছোট হলঘর) সাকল্যে পঞ্চাশজনও শ্রোতা নয়, অধিকাংশই বেলারুশ ও ইউক্রেনের। বাবা বেলারুশের, মা ইউক্রেনের। দু’দেশেই জ্ঞাতিগোষ্ঠী বিস্তর। পিতৃভূমি বেলারুশের চেয়ে মাতৃভূমি ইউক্রেনের দিকেই টান একটু বেশি, অন্তত কথায় মনে হলো রাশিয়ার ভূমিকায় মহাক্ষিপ্ত। তীব্র সমালোচকও। ভøাদিমির পুতিনকে যুদ্ধবাজ বলতেও ছাড়েন না।

বার্লিনের আন্তর্জাতিক সাহিত্য উৎসবে চারবার যোগ দিয়েছেন, এবার নিয়ে পাঁচবার। বার্লিনে সেভেতলানা আলেক্সিয়েভিচের দ্বিতীয় কন্যার সাবেক স্বামীর বাস, বিচ্ছেদ হলেও জামাইয়ের সঙ্গে সুসম্পর্ক। বলছিলেন হেসে, আড্ডায়, আমাকে ওর নতুন গাড়িতে নিয়ে খুব ঘুরে বেড়াচ্ছে।

মৃদুভাষিণী তবে দারুণ মজলিসি, রেড ওয়াইন একটু বেশি খান এই যা। লক্ষ্য করি, মুখে ছোট ছোট (একটি বড়) আটটি তিল। বলেন, এগুলো লাকি তিল।

মজলিসে আমরা পাঁচজন, সেভেতলানাকে নিয়ে ছয়, তিনিই মধ্যমণি। সাহিত্য বিষয়ে কথা নয় আদৌ, বরং শরণার্থীর দুর্দশা, জার্মানি, পূর্ব ইউরোপের ভূমিকা কতটা মানবিক হবে ভবিষ্যতে, তাই

চিন্তিত তিনি। একটি কথা কানে বাজছে, বললেন, পূর্ব ইউরোপ মুসলিম শরণার্থীকে ঠাঁই দেবে না। কারণ, পূর্ব ইউরোপে হাজার হাজার (হাঙ্গেরিতেই ২৪ হাজার) ইহুদি আছে। মুসলিমদের সঙ্গে একদিন না একদিন সংঘর্ষ হবেই, পূর্ব ইউরোপের অনেক দেশই আঁচ করছে এখন। এই উটকো ঝামেলা কেন কাঁধে নেবে।

আড্ডায় সেভেতলানা আলেক্সিভিয়েচের মুখেই শুনলুম, বললেন, আমার নাম কচি খুকি (বেবি), সেভেতলানা মানে বেবি।

আরও বললেন, বেলা মানে সাদা, তাই জার্মানরা বেলারুশকে বলে সাদা রাশিয়া। পূর্ব ইউরোপে কে সাদা নয়, কালো কোথায়। আট সংখ্যা তাহলে সেভেতলানার জন্য অপয়া নয়, সৌভাগ্যেরই, আট তারিখেই সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পেলেন তিনি।

লেখক : কবি, বার্লিন থেকে

daud.haider21@gmail.com