২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিপিএল মাতাতে আফ্রিদির সঙ্গে আসছেন আমির

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ পাকিস্তানের শহীদ আফ্রিদি আগেই বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে (বিপিএল) খেলার আগ্রহের কথা জানিয়েছেন। তিনি বিপিএলে খেলবেনও। এবার জানা গেল, পাকিস্তান পেসার মোহাম্মদ আমিরও খেলবেন বিপিএল! আফ্রিদির সঙ্গে বিপিএল মাতাতে আসছেন আমিরও।

নবেম্বরের ১৯ তারিখে উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে বিপিএলের তৃতীয় আসরের পর্দা ওঠার কথা রয়েছে। বিপিএলের দ্বিতীয় আসরে অংশ না নিলেও আসন্ন তৃতীয় আসরে পাকিস্তানী ক্রিকেটাররা থাকছেন। এটা নিশ্চিত হয়ে গেছে। এখন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ও পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) সঙ্গে যে অনেক ভাল সম্পর্ক বিরাজ করছে। কয়েকদিন আগে বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দলও পাকিস্তানে গিয়ে খেলে আসল। এ জন্য বিপিএলে পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা থাকছেন। পাকিস্তানী ক্রিকেটারদের একটি তালিকাও তৈরি করা হয়েছে। পিসিবিই সেই তালিকা তৈরি করেছে। আর সেই তালিকায় রয়েছেন নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে মাঠে ফেরা তরুণ পেসার মোহাম্মদ আমির। এই সম্পর্কিত একটি সংবাদ প্রকাশ করেছে অনলাইন নিউজ পোর্টাল পাকিস্তান হেডলাইন। নিউজ পোর্টালের মাধ্যমে জানা গেছে, বিপিএলের পরবর্তী আসরের জন্য ৩৫ সদস্যের একটি তালিকা অনুমোদন করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। ওই তালিকার নাম রয়েছে তরুণ পেসার মোহাম্মাদ আমিরের। তবে আমিরের নাম থাকলেও তালিকায় জায়গা হয়নি সালমান বাট কিংবা মোহাম্মদ আসিফের। মোহাম্মদ আমিরের নাম তালিকায় রাখার বিষয়টি স্বীকার করেছেন বিপিএলের টেকনিক্যাল কমিটির সদস্য, বিসিবির পরিচালক খালেদ মাহমুদ সুজনও।

তিনি বলেন, ‘পাকিস্তানের বেশকিছু খেলোয়াড়ের নাম আমরা তালিকাভুক্ত করেছি। তার মধ্যে সেও (আমির) আছে। প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ক্রিকেট খেলতে তার উপর যেহেতু আইসিসির কোন প্রকার নিষেধাজ্ঞা নেই, তাই আমরা তাকেও রেখেছি তালিকায়। সে ইতোমধ্যে পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলতে শুরু করেছে। সুতরাং বিপিএলে খেলতে তার কোন সমস্যা নেই।’

২০১০ সালে লর্ডস টেস্টে ম্যাচ পাতানোর সঙ্গে জড়িত থাকায় ৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হন ওই সময়ের সেরা বোলার আমির। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে তিনি ইতোমধ্যে পাকিস্তানের ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরেছেন। বল হাতে দারুণ পারফর্মেন্স করছেন। কায়েদে আজম ট্রফির বাছাইপর্বে চারদিনের তিন ম্যাচে ২৭ উইকেট নিয়েছেন।

পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফের ক্রিকেট মাঠে ফিরেছেন পাকিস্তানের পেসার মোহাম্মদ আমির। ঘরোয়া লীগে খেলা এ তারকার লক্ষ্য এখন পাকিস্তান জাতীয় দলের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রত্যাবর্তন। তবে সহসাই ক্রিকেট ইতিহাসে রেকর্ড ১৪ টেস্টে ৫১ উইকেট নেয়া আমির জাতীয় দলে ফিরতে পারছেন না। বর্তমানে জাতীয় দলে ফিরতে কঠোর পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। আর তাই ঘরোয়া লীগের পাশাপাশি বিপিএলের তৃতীয় আসরে খেলতে আগ্রহী আমির।

এর আগে বিপিএলের তৃতীয় আসরে খেলতে মুখিয়ে থাকার কথা নিজেই জানিয়েছেন পাকিস্তানের টি২০ অধিনায়ক ‘বুমবুম’ আফ্রিদি। ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক দলের বিপিএলের প্রথম আসরে সবচেয়ে বেশি দাম পেয়েছিলেন আফ্রিদি। তবে, দ্বিতীয় আসরে বাংলাদেশে আসা হয়নি তার। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) নিষেধাজ্ঞা থাকার কারণে দ্বিতীয় আসরে খেলা হয়নি। তবে, এবারের তৃতীয় আসরে কোন নিষেধাজ্ঞা না থাকায় বিপিএলে অংশ নেবেন আফ্রিদি। সম্প্রতি ব্যাটিংয়ে রান খরা আর বোলিংয়ে উইকেট খরায় ভুগছেন আফ্রিদি। ওয়ানডে আর টেস্টকে বিদায় জানানো এ তারকা অলরাউন্ডার সর্বশেষ ১০ টি২০ ম্যাচে করেছেন মাত্র ১১০ রান। আর বল হাতে পেয়েছেন মাত্র ৬ উইকেট। নিজের বাজে ফর্ম আর এর থেকে পরিত্রাণ পেতে হলে আরও ম্যাচ খেলতে চান আফ্রিদি। ছন্দে ফিরতে মরিয়া এ হার্ডহিটার ব্যাটসম্যান। আর তাই বিপিএলে খেলতে চান। এ প্রসঙ্গে আফ্রিদি বলেন, ‘বাংলাদেশ থেকে আমাকে প্রস্তাব করা হয়েছে আসন্ন বিপিএলে খেলার জন্য।

এ টুর্নামেন্ট আমাকে ছন্দ ফিরে পেতে সাহায্য করবে। টুর্নামেন্টের নতুন আসরে নামতে অপেক্ষায় আছি।’ প্রথম আসরে খুলনার বিপক্ষে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে আফ্রিদি ব্যাট হাতে করেছিলেন ২৭ রান আর বল হাতে নিয়েছিলেন এক উইকেট। ১১ বলে তিন বিশাল ছক্কায় অপরাজিত থাকেন তিনি। পরের ম্যাচে বরিশালের বিপক্ষে ফাইনালে ঢাকার হয়ে সর্বোচ্চ তিন উইকেট তুলে নেন তিনি। ৪ ওভার বল করে ২৩ রানের বিনিময়ে ৩ উইকেট পাওয়া আফ্রিদিকে ব্যাট হাতে নামতে হয়নি। চ্যাম্পিয়নও হয় তার দল। এক আসরে আফ্রিদিকে দেখা না গেলেও এবার আবার বিপিএল মাতাবেন। বিপিএল শুরু হওয়ার আগে থেকেই ক্রিকেট থেকে নির্বাসিত থাকায় আমির বিপিএলে খেলতে পারেননি। এবার আমিরকেও দেখা যাবে বিপিএলে।