১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঝিনাইদহে অপহৃত কলেজছাত্র চুয়াডাঙ্গায় উদ্ধার

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝিনাইদহ, ১০ অক্টোবর ॥ ঝিনাইদহ থেকে মুক্তিপণের দাবিতে অপহৃত কলেজছাত্র ইমরানকে উদ্ধার ও চার অপহরণকারীকে আটক করেছে র‌্যাব। শনিবার ভোরে চুয়াডাঙ্গার দশমাইল বাজার থেকে ইমরানকে উদ্ধারের পর র‌্যাব অভিযানে বের হয়। তারা অপহরণকারীদের মোবাইল ফোন ট্র্যাকিং করে চুয়াডাঙ্গা শহরের শান্তিপাড়া থেকে ৪ অপহরণকারীকে আটক করে। আটককৃত অপহরণকারীরা হলো চুয়াডাঙ্গার পলাশপাড়ার মোনসাত আলীর ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান মিল্টন, শান্তিপাড়ার আব্দুর রহমানের ছেলে মামুনুর রশীদ, পলাশপাড়ার সিরাজুল ইসলামের ছেলে তৌফিক আহমেদ ইরান ও আব্দুল গনির ছেলে আমির হোসেন। অপহরণকারীদের কাছ থেকে ৪টি মোবাইল ফোন ও ১টি মোরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। র‌্যাব জানায়, অপহরণকারীরা ফেসবুকে মিম নামে একটি ভুয়া আইডি খুলে কলেজছাত্র ইমরানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। একপর্যায়ে গত ৬ অক্টোবর ইমরানকে তারা ঝিনাইদহ শহরের ভেটেরিনারি কলেজের সামনে দেখা করতে বলে। ইমরান সেখানে গেলে অপহরণকারীরা তাকে একটি মোটরসাইকেলে করে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে তার পরিবারের কাছে মুক্তিপণ দাবি করে। পরিবারের লোকজন বিষয়টি র‌্যাবকে জানায়। এর আগেও এই অপহরণকারী চক্র একইভাবে ফাঁদে ফেলে আরও কয়েক যুবকের কাছ থেকে মুক্তিপণ আদায় করেছে বলে র‌্যাবের কাছে স্বীকার করেছে।

যশোরে রাজিবুলের বিরুদ্ধে মামলা সাজানো নাটক

সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ যুবলীগ নেতা রাজিবুল আলমের মুক্তি ও ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে শনিবার সকালে যশোর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছে এলাকাবাসী। দলমত নির্বিশেষে এলাকার গণ্যমান্য মুরুব্বী ব্যক্তিরা সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন লরেঞ্জ পান্ডে।

বক্তব্য রাখেন সোহেল আল-মামুন নিশাত। আরও উপস্থিত ছিলেন জোসেফ সুধীন ম-ল, ইসমাইল হোসেন, সিরাজুল ইসলাম, তোফাজ্জেল হোসেনসহ বিপুলসংখ্যক এলাকাবাসী। তারা বলেন, রাজিবুলের বিরুদ্ধে অতীতে কখনও কোন মামলা ছিল না। তিনি এলাকায় স্বজ্জন, সৎ, সমাজসেবক হিসেবে সমধিক পরিচিত। কোন ধরনের সন্ত্রাসী কার্যকলাপের সঙ্গে অতীতে বা এখন পর্যন্ত জড়িত নন। আমাদের এলাকার সন্তানকে আমরা খুব ভাল করেই চিনি। বক্তারা বলেন, পুলিশ কারও ইঙ্গিতে তার সুনাম নষ্ট করতে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলীর বাসভবনে বোমা হামলার মনগড়া মামলা করেছে। যার ন্যূনতম ভিত্তি নেই।