১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সানিয়া-হিঙ্গিস চমক চলছেই

সানিয়া-হিঙ্গিস চমক চলছেই
  • চায়না ওপেনে টানা চতুর্থ শিরোপা জয়, মৌসুমের অষ্টম

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সানিয়া মির্জা আর মার্টিনা হিঙ্গিস তাদের দাপট দেখিয়েই যাচ্ছেন। চায়না ওপেনের মাধ্যমে টানা চতুর্থ শিরোপা জয়ের স্বাদ পেলেন ইন্দো-সুইস জুটি। সেইসঙ্গে চলতি বছরের অষ্টম শিরোপা নিজেদের শোকেসে তুললেন তারা। চায়না ওপেনের ফাইনালে তারা ৬-৭ (৯), ৬-১ এবং ১০-৮ গেমে হারান তাইপের হাও চিং চান এবং ইউন জান চান জুটিকে।

চলতি বছরের শুরু থেকেই দুর্দান্ত খেলছেন সানিয়া মির্জা আর মার্টিনা হিঙ্গিস। মৌসুমের শেষ গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট ইউএস ওপেনেও চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করেন তারা। এরপর গুয়াংজো এবং উহান ওপেন জিতেই চায়না ওপেনের কোর্টে নামেন ইন্দো-সুইস জুটি। টুর্নামেন্টের শুরু থেকে খেলেনও দুর্দান্ত। ফাইনালেও তার ব্যতিক্রম নয়। চায়না ওপেনের মহিলা দ্বৈতে প্রত্যাশিতভাবেই চ্যাম্পিয়ন হন তারা। তবে ফাইনালের শুরুতেই কিছুটা ধাক্কা খান ইন্দো-সুইস জুটি। ইউএস ওপেনের চ্যাম্পিয়নরা প্রথম সেটেই হেরে যান। তবে দ্বিতীয় সেটে দুর্দান্তভাবে ঘুরে দাঁড়ায় এই জুটি। প্রতিপক্ষের বিপক্ষে তারা দ্বিতীয় সেটটি জিতে নেন ৬-১ ব্যবধানে। তৃতীয় সেটে আবার ঘাম ঝরাতে হয় দুই দলকে। শেষ পর্যন্ত ১০-৮ গেমে জিতে নেন সানিয়া-হিঙ্গিস।

ফাইনালের মঞ্চে স্বাগতিক দুইবোনকে হারিয়ে চায়না ওপেনের চ্যাম্পিয়ন হয়ে দারুণ রোমাঞ্চিত সানিয়া মির্জা। তবে প্রথম সেটে হেরে যাওয়ার হতাশা তাকে ছাড়েনি। এ বিষয়ে ভারতীয় এই টেনিস তারকা বলেন, ‘প্রথম সেটে বেশ লড়াই হয়েছে। তবে আমাদের জিততে না পারাটাকে দুর্ভাগ্যই বলতে হয়।’ গত সিনসিনাতি মাস্টার্সে এই জুটির কাছেই হেরেছিলেন ইন্দো-সুইস জুটি। এবার সেই পরাজয়ের প্রতিশোধটাও নিয়ে নিলেন দারুণভাবে। তবে এর পেছনে অভিজ্ঞতাকেও এগিয়ে রাখছেন ভারতীয় সেনসেশন। এ বিষয়ে সানিয়ার মন্তব্য, ‘প্রথম সেটে হেরে গেলেও আমরা মনোবল হারায়নি। বরং একত্রে দু’জনই নিজেদের সেরাটা দেয়ার চেষ্টা করেছি। আমি মনে করি এখানে অভিজ্ঞতা আমাদের দারুণভাবে কাজে লেগেছে।’ সানিয়া অভিজ্ঞতার কথা বললেও কিংবদন্তি মার্টিনা হিঙ্গিস বলছেন ভিন্ন কথা। তার মতে, আক্রমণাত্মক খেলাটাই সাফল্যের মূল কথা, ‘আমরা সবসময়ই আক্রমণাত্মক খেলার চেষ্টা করেছি। সেইসঙ্গে অনেক বেশি সুযোগ তৈরি করার চেষ্টা করেছি।’ টানা চার টুর্নামেন্টে টানা ১৮ ম্যাচ জয়ের রেকর্ড এখন এই জুটির দখলে। তাদের লক্ষ্য এখন ডব্লিউটিএ ফাইনালস। এর আগে সানিয়া মির্জা ভারতে ফিরলেও মার্টিনা হিঙ্গিস খেলবেন টিয়ানজিনে। এই টুর্নামেন্টে সানিয়ার অনুপস্থিতিতে ইতালির ফ্লাভিয়া পেনেত্তার সঙ্গে জুটি বাঁধবেন হিঙ্গিস।