২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ব্যাকসিনস্কিকে হারিয়ে মুগুরুজা চ্যাম্পিয়ন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ চায়না ওপেনের শিরোপা জিতলেন গারবিন মুগুরুজা। দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো বড় কোন টুর্নামেন্টের শিরোপা জয়ের স্বাদ পেলেন তিনি। রবিবার টুর্নামেন্টের ফাইনালে টিমিয়া ব্যাকসিনস্কিকে পরাজিত করে স্বপ্নের শিরোপার ছুঁয়া পান স্পেনের এই টেনিস তারকা। সেইসঙ্গে টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়েও অগ্রগতি হয়েছে তার। আজ প্রকাশিত সর্বশেষ ডব্লিউটিএ র‌্যাঙ্কিং অনুযায়ী চতুর্থ স্থানে উঠে যাবেন মুগুরুজা।

চায়না ওপেনের ফাইনালে হেরে স্বপ্নভঙ্গ হয় টিমিয়া ব্যাকসিনস্কির। তারপরও এটাই তার ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ অর্জন। কেননা চায়না ওপেনের আগে চলতি মৌসুমে চারটি টুর্নামেন্টে খেলে তার সবকটিরই প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নেন তিনি। টরেন্টো, সিনসিনাতি, নিউ হ্যাভেনের পর বছরের শেষ গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট ইউএস ওপেনেরও প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নেন টিমিয়া। অথচ চায়না ওপেনেই ঘুরে দাঁড়ান তিনি। টুর্নামেন্টে শীর্ষ দশের দুই তারকা কার্লা সুয়ারেজ নাভারো এবং সার্বিয়ার আনা ইভানোভিচকে বিদায় করে ফাইনালে ওঠেন ব্যাকসিনস্কি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত শিরোপা জয়ের মঞ্চে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি তিনি। বরং তাকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো ক্যারিয়ারের বড় কোন শিরোপা জয়ের স্বাদ পান গারবিন মুগুরুজা। স্প্যানিশ এই টেনিস তারকা রবিবার ৭-৫ এবং ৬-৪ গেমে হারান টিমিয়া ব্যাকসিনস্কিকে। তবে মুগুরুজার কাছে চায়না ওপেনের শিরোপা হারলেও অসামান্য এক কীর্তি গড়লেন টিমিয়া। প্রথমবারের মতো বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দশে উঠে এলেন তিনি। আর এতে বিস্মিত ব্যাকসিনস্কি। কারণ দুই বছর আগেই যে টেনিসকে বিদায় বলে দিতে চেয়েছিলেন তিনি! তারপর দীর্ঘ এই পথ পাড়ি দেয়ার ক্ষেত্রে ভূমিকা রেখেছেন তার কোচ দিমিত্রি। তাই কোর্টের সাক্ষাতকারেই আবেগাপ্লুত ব্যাকসিনস্কি তার কোচকে সকল কৃতিত্ব দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমি সত্যিই এই টুর্নামেন্ট কোন একজনকে উৎসর্গ করতে চাই। আমি আসলে অনেক পথই হেঁটে এসেছি। কেননা দুই বছর আগেই টেনিস থেকে অবসর নিতে চেয়েছিলাম আমি। কিন্তু এই পথে, টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দশে আমাকে নিয়ে এসেছেন কোচ দিমিত্রি। প্রতিটি দিন আমার পাশে থেকে সহায়তা করার জন্য আপনার প্রতি কৃতজ্ঞ।’ প্রতিপক্ষ গারবিন মুগুরুজাও অভিনন্দন জানিয়েছেন সুইস সুন্দরীকেও। তিনি বলেন, ‘আমি টিমিয়াকে অভিনন্দন জানাতে চাই। কারণ শীর্ষ দশে উঠে আসাটা বিস্ময়কর এক অর্জন।’ আর গত সপ্তাহে উহান ওপেনের ফাইনালে হারের পর চায়না ওপেন জেতাটা আমার জন্য দারুণ সন্তুষ্টির।’