১৬ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চাইল্ড হেল্পলাইন সম্প্রসারণের অংশীদার হলো গ্রামীণফোন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঝুকিপূর্ণ শিশুদের সহায়তায় চাইল্ড হেল্পলাইন-১০৯৮ সম্প্রসারণ কার্যক্রমে দেশে প্রথমবারের মতো অংশীদার হয়েছে গ্রামীণফোন।

সোমবার রাজধানীর একটি অভিজাত হোটেলে কার্যক্রম সম্প্রসারণে ইউনিসেফের সঙ্গে গ্রামীণফোনের একটি চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠিত হয়েছে। ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইউনিসেফ বাংলাদেশের প্রতিনিধি এডওয়ার্ড বেগবেডার ও গ্রামীণফোনের চিফ মার্কেটিং অফিসার ইয়াসির আজমান, চিফ কর্পোরেট অফিসার মাহমুদ হোসেন ও টেলিনরের চিফ রিপ্রেজেন্টেটিভ অফিসার হ্যান্স মার্টিন হোয়েগ হেনরিকসন প্রমুখ।

ইউনিসেফ প্রতিনিধি এডওয়ার্ড বেগবেডার বলেন, চাইল্ড হেল্পলাইন এতোটাই সফল হয়েছে যে, আমরা এ সেবার সম্প্রসারণ করতে চেয়েছি। গ্রামীণফোন ও সমাজকল্যাণ মন্ত্রলণালয়ের সঙ্গে সহযোগিতার ভিত্তিতে একসঙ্গে কাজ করার মাধ্যমে আমাদের সে চাওয়াটা আজ বাস্তবে পরিণত হয়েছে।

গ্রামীণফানের চিফ মার্কেটিং অফিসার ইয়াসির আজমান বলেন, দুর্দশাগ্রস্থ শিশুদের ক্ষমতায়নের হাতিয়ার হিসাবে চাইল্ড হেল্পলাইন নিজেকে প্রমাণে সচেষ্ট হয়েছে। বাংলাদেশে এ সেবার সম্প্রসারণ ঘটাতে পেরে আমরা সন্তুষ্ট। গ্রামীণফোন ইউনিসেফের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ এ প্রকল্পে কাজ করতে পেরে গর্বিত।

টেলিনর বাংলাদেশের চিফ রিপ্রেজেন্টেটিভ অফিসার হ্যান্স মার্টিন হোয়েগ হেনরিকসন বলেন, মোবাইল প্রযুক্তির মাধ্যমে শিশুদের অধিকার রক্ষায় বৈশ্বিকভাবে সহযোগিতার ভিত্তিতে ইউনিসেফের সঙ্গে একসাথে কাজ করতে পেরে টেলিনর গর্বিত।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, ২০১১ সাল থেকে চাইল্ড হেল্পলাইন ঝুঁকির মধ্যে থাকা রাজধানীর অসহায় ও দু:স্থ শিশুদের তাৎক্ষণিক সহায়তা দিচ্ছে। বিনামূল্যে ১০৯৮ চাইল্ড হেল্পলাইনটি সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধিনস্থ সমাজসেবা অধিদফতরের একটি প্রকল্প। সহযোগী হিসাবে এনজিও অপরাজেয় বাংলাদেশের মাধ্যমে সহায়তা দিচ্ছে ইউনিসেফ।

নির্বাচিত সংবাদ