২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চট্টগ্রামে ট্রাক উল্টে নিহত ৭ ॥ আহত ৪

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মীরসরাইয়ে সোনাপাহাড় এলাকায় চালবোঝাই একটি ট্রাক উল্টে ঘটনাস্থলেই সাতজন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৪ জন। সোমবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে সোনাপাহাড় ওমেরা পেট্রোলিয়াম লিমিটেড ইন্ডাস্ট্রির সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনার পর থেকে ট্রাকটির চালক ও হেলপার পলাতক রয়েছে। নিহত সাতজনের মধ্যে ছয়জনের বাড়ি নওগাঁয়। তাদের পরিবারে চলছে মাতম। এদিকে দিনাজপুরে ইজিবাইকের ধাক্কায় এক কলেজছাত্রী নিহত হয়েছেন। এছাড়া টাঙ্গাইলে সড়ক দুর্ঘটনায় এক শিক্ষক নিহত হয়েছেন। খবর স্টাফ রিপোর্টার, নিজস্ব সংবাদদাতা ও সংবাদদাতার।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, নওগাঁ থেকে ছেড়ে আসা চালবোঝাই ট্রাকটি চট্টগ্রামের মীরসরাইয়ের সোনাপাহাড় এলাকায় এসে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের খাদে পড়ে উল্টে যায়। এতে ট্রাকের ওপর থাকা ৭ যাত্রী চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন। নিহতরা হলেনÑ নওগাঁর আত্রাই থানার উত্তর বিল গ্রামের অপি ম-লের পুত্র মোঃ কামাল মিয়া (৪৫), জিয়াউল হকের পুত্র মোঃ রুবেল (২৫), রিয়াজের পুত্র মোঃ সাইদুর (৪০), মোঃ সাদেকের পুত্র মোঃ টিপু (৪৫), মোঃ নূহ এর পুত্র মোঃ আলম (৩০), জাম গ্রামের আয়নুল উদ্দিনের পুত্র মনির উদ্দিন (৪৫) এবং বগুড়ার আদমদিঘী থানার কালাইঘাট গ্রামের আনসার আলীর পুত্র আজাদ (২৫)। হাইওয়ে পুলিশ নিহতদের লাশ উদ্ধার করে জোরারগঞ্জ ফাঁড়িতে নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে ট্রাক আরোহী আহত মোঃ শাহ আলম ও লাবলু জানান, নওগাঁ থেকে তারা ১১ জন ২০০ টাকা করে ভাড়ায় চট্টগ্রামের উদ্দেশে ট্রাকের ছাদে গত রবিবার দুপুরের দিকে যাত্রা করেন। ট্রাকটিতে ড্রাইভার হেলপারসহ মোট ১৫ জন ছিল। গভীর রাতে ফেনী পার হওয়ার সময় চালকের ঘুম আসায় চালক হেলপারকে ট্রাকটি চালাতে দেন। চোখে ঘুম নিয়ে হেলপার ট্রাকটি চালাচ্ছিল। এর কিছুক্ষণ পর ট্রাকটি উল্টে গিয়ে খাদে পড়ে গিয়ে সকলকে চাপা দেয়। তিনি বলেন, সৌভাগ্যবশত আমরা ট্রাক থেকে ছিটকে পড়ায় বেঁচে যাই।

এ ব্যাপারে হাইওয়ে পুলিশ চট্টগ্রামের সহকারী পুলিশ সুপার গোলাম মোহাম্মদ জানান, চালকের পরিবর্তে তার সহকারী ট্রাকটি চালানোর কারণে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে খাদে পড়ে। দুর্ঘটনায় নিহতদের লাশগুলো দ্রুত পরিবারের কাছে হস্তান্তরের জন্য যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। পাশাপাশি ৭ জন নিহতের ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

নিহতদের গ্রামে মাতম ॥ মীরসরাইয়ে চালবোঝাই ট্রাক উল্টে নিহত ৭ জনের মধ্যে ৬ জনেরই বাড়ি নওগাঁর আত্রাই উপজেলায়। নিহতদের এলাকায় চলছে শোকের মাতম। হতাহতের খবর ছড়িয়ে পড়লে আশপাশের গ্রামের মানুষ ছুটে আসে নিহতদের বাড়িতে। স্বজনদের আহাজারি আর আর্তনাদে গ্রামের আকাশ বাতাস ভারি হয়ে ওঠে।

গ্রামবাসী জানান, রবিবার বিকেলে একই এলাকার আট যুবক চালবোঝাই একটি ট্রাকযোগে নওগাঁ থেকে চট্টগ্রামে রওনা দেন। তারা চট্টগ্রাম বন্দরে শ্রমিকের কাজ করতেন। ঈদের পর বাড়িতে এসে ছুটি কাটিয়ে আবারও কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন। পথে দুর্ঘটনায় পড়েন তারা। দুর্ঘটনার সময় ওই ট্রাকে থাকা সাইফুল ইসলাম (২৮) ও শাহ আলম (২২) নামে আরও দুই যুবক আহত হয়েছেন। ঘটনার পর তাদের উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশের সদস্যরা। আহত সাইফুল ইসলাম আত্রাই উপজেলার উত্তর বিল গ্রামের বাসিন্দা। শাহ আলম জাম গ্রামের মুর্শিদের ছেলে বলে জানা গেছে।

কলেজছাত্রী নিহত ॥ দিনাজপুর শহরে বালুবাড়ী এলাকায় ব্যাটারিচালিত ইজিবাইকের ধাক্কায় প্রীতিলতা রায় (১৯) নামে এক কলেজছাত্রী নিহত হয়েছেন। সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। প্রীতিলতা দিনাজপুর সরকারী মহিলা কলেজের একাদশ ১ম বর্ষের বিজ্ঞান বিভাগের ছাত্রী। তিনি চিরিরবন্দর উপজেলার নানিয়াটিকর গ্রামের ধীরেন্দ্র নাথ রায়ের কন্যা।

দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম খালেকুজ্জমান জানান, সোমবার দুপুরে প্রীতিলতা রায় কলেজের সামনের সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে ছিল। এ সময় একটি ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক তাকে পেছন থেকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে সে গুরুতর অসুস্থ হলে তাকে তাৎক্ষণিকভাবে দিনাজপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন থাকার কিছুক্ষণ পরে তিনি মারা যান। এ ব্যাপারে কোতোয়ালি থানায় ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

টাঙ্গাইলে ট্রাকের ধাক্কায় শিক্ষকের মৃত্যু ॥ নিজস্ব সংবাদদাতা টাঙ্গাইল থেকে জানান, টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার এলেঙ্গা-বল্লা আন্তঃসড়কের বালিআটা নামকস্থানে ট্রাকের ধাক্কায় ভ্যান উল্টে মিজানুর রহমান (৭৫) নামে এক প্রবীণ শিক্ষক সোমবার দুপুরে টাঙ্গাইল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মারা যান।