২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জামায়াত বিএনপির ৪১ জনের বিরুদ্ধে যশোরে চার্জশীট

  • আ’লীগ অফিসে বোমা হামলা

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ যশোরের মনিরামপুর উপজেলার ভরতপুর বাজারের আওয়ামী লীগ অফিসে বোমা হামলা ও ভাংচুরের মামলায় বিএনপি জামায়াতের ৪১ নেতাকর্মীকে অভিযুক্ত করে চার্জশীট দিয়েছে পুলিশ। একইসঙ্গে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় ৮৫ জনকে অব্যাহতির সুপারিশ করা হয়েছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সোমবার আদালতে এ চার্জশিীট দাখিল করেন। অভিযুক্তরা হলো- ভরতপুর গ্রামের রওশন আলী, ফারুক হোসেন, বাহাজ্জাল আলী, বজলু গাজী, শরীফ আক্তার, আবুল কাশেম, কামাল হোসেন, কবির হোসেন, জাহাঙ্গীর হোসেন, শিমুল গাজী, আলীম গাজী, মন্টু গাজী, জলিল গাজী, সোহেল গাজী, নুর মোহাম্মাদ, বিল্লাল হোসেন, ইলিয়াস হোসেন, নজরুল ইসলাম, ইলিয়াস, রাহাজ্জান, সাজ্জাত, ওলিয়ার রহমান, আকতার হোসেন, বদরুদ্দিন, পিলে আহম্মেদ, পারকুল ইসলাম, আলতাব হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, জাহাঙ্গীর হোসেন, জসিম, জামিল আহম্মেদ, রফিকুল ইসলাম, সেকেন্দার হোসেন, লিটন গাজী, মহিবুল্লাহ, শহিন আক্তার, মুনসুর ও ওহাব আলী। মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৪ সালের ৪ জানুয়ারি ১০ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগের দিন সন্ধ্যায় ভরতপুর বাজারে আওয়ামী লীগ অফিসে হামলা চালায় বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীরা। এ সময় হামলাকারীরা কয়েকটি বোমার বিস্ফোরণ ঘটিয়ে ত্রাস সৃষ্টি করে। একইসঙ্গে দলীয় কার্যালয়ের আসবাবপত্র ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করে। এছাড়া কার্যালয়ের পার্শ্ববর্তী দুইটি চায়ের দোকানেও আগুন লাগিয়ে দেয় হামলাকারীরা। একপর্যায়ে বাজারের লোকজন জড়ো হয়ে ধাওয়া দিলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়।

ভাবিপ্রবিতে ১৬তম বর্ষপূর্তি উদ্যাপন

নিজস্ব সংবাদদাতা, টাঙ্গাইল, ১২ অক্টোবর ॥ বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে টাঙ্গাইলে মাওলানা ভাসানী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৬তম বর্ষপূর্তি উদ্যাপিত হয়েছে। সোমবার দুপুরে প্রশাসনিক ভবনের সামনে বেলুন ও শান্তির পায়রা উড়িয়ে কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. মোঃ আলাউদ্দিন। উদ্বোধন শেষে প্রশাসনিক ভবনের সামনে থেকে একটি বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালি বের হয়ে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে মাওলানা ভাসানীর মাজারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ফাতেহা পাঠ করেন। ১৬ পাউন্ডের কেক কেটে শিক্ষক, শিক্ষার্থীরা আনন্দ-উল্লাস করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন পিনাকী দে, সিরাজুল ইসলাম, সায়েন্স অনুষদের ডিন ড. খাদেমুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডিন ড. মতিউর রহমান, পরিসংখ্যান বিভাগের অধ্যাপক ড. মনিন্দ্র কুমার রায়সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।