২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজন হত্যা ॥ বৃহস্পতিবার কামরুলকে দেশে আনা হচ্ছে

কূটনৈতিক রিপোর্টার ॥ সিলেটের চাঞ্চল্যকর শিশু সামিউল আলম রাজন হত্যার প্রধান আসামী কামরুল ইসলামকে সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরিয়ে আনার যাবতীয় প্রস্তুতি চূড়ান্ত হয়েছে। আগামীকাল বৃহস্পতিবার কামরুল ইসলামকে সৌদি আরব থেকে ফিরিয়ে আনা হবে বলে আশা করা হচ্ছে। মঙ্গলবার ঢাকার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, পুলিশের হেড কোয়ার্টার ও সৌদি আরবের বাংলাদেশ মিশনের সমন্বয়ে শিশু সামিউল আলম রাজন হত্যার প্রধান আসামী কামরুল ইসলামকে সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরিয়ে আনার যাবতীয় প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। তাকে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে সৌদি আরব সরকারের কাছ থেকে বাংলাদেশ সর্বাত্মক সহযোগিতা পেয়েছে।

আসামী কামরুল ইসলামকে ফিরিয়ে আনার জন্য বাংলাদেশের তিনজন পুলিশ কর্মকর্তা রিয়াদে অবস্থান করছেন। আগামী কাল বৃহস্পতিবার তারা কামরুলকে নিয়ে ঢাকায় ফিরবেন বলে আশা করা হচ্ছে। কামরুল ইসলামের অবস্থান চিহ্নিত করে প্রবাসী বাংলাদেশীরা সৌদি আরবের জেদ্দায় বাংলাদেশ কনস্যুলেট অফিসকে অবহিত করে। এ প্রেক্ষিতে গত ১৩ জুলাই সৌদি পুলিশ কামরুল ইসলামকে গ্রেফতার করে।

এদিকে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম কয়েকদিন আগে জানিয়েছিলেন ঈদে সৌদি আরবের সরকারী ছুটির কারণে আসামী কামরুল ইসলামকে দ্রুত ফিরিয়ে আনা সম্ভব হয়নি। তবে খুব শিঘ্রই তাকে ফিরিয়ে আনা হবে।

উল্লেখ্য, গত ৮ জুলাই শিশু রাজনকে পিটিয়ে হত্যার পর তার মরদেহ গুম করার চেষ্টা করা হয়। তবে স্থানীয় জনতা তার মরদেহ উদ্ধার করে। আর রাজন হত্যার প্রধান আসামী কামরুল ইসলাম সৌদি আরবে পালিয়ে যান। নিহত রাজন সিলেট সদর উপজেলার কান্দিগাঁও ইউনিয়নের বাদেআলী গ্রামের মাইক্রোবাস চালক শেখ আজিজুর রহমানের ছেলে। রাজনকে হত্যার নির্মম নির্যাতনের ভিডিওচিত্র প্রকাশ হওয়ার পর সিলেটসহ দেশজুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।