২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সংঘর্ষে গ্রামবাসী, গণপিটুনিতে ২ ডাকাত নিহত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সংঘর্ষে গ্রামবাসী, গণপিটুনিতে ২ ডাকাত নিহত

স্টাফ রিপোর্টার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ॥ আশুগঞ্জে দু’দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষে মঙ্গলবার ১ জন নিহত এবং অর্ধশত আহত হয়েছে। নিহতের নাম নূরুল আমিন (৫০)। সে বগইর গ্রামের মন্নর আলীর ছেলে। আহতদের স্থানীয়, জেলা ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদিকে, জেলার কসবা উপজেলায় গণপিটুনিতে ২ ডাকাত নিহত হয়েছে। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে গত সপ্তাহে উপজেলার খড়িয়ালা গ্রামের আলমগীর হোসেনকে বগইর গ্রামের মন মিয়া, গোলাপ মিয়া, শাহজাহান মিয়া ও গিয়াস মিয়া ব্যাপক মারধর করে। গুরুতর আহত অবস্থায় আলমগীর হোসেনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর জের ধরে মঙ্গলবার সকালে উভয়পক্ষের কয়েক হাজার লোক সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পুলিশ কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ করে আশুগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন জানান, সংঘর্ষ থামাতে পুলিশ ২০ রাউন্ড বুলেট, ২২ রাউন্ড টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

এছাড়া জেলার কসবা উপজেলা কুটি ইউনিয়নের লেশিয়ারা গ্রামে গণপিটুনিতে দুই ডাকাত নিহত হয়েছে। নিহতদের পরিচয় জানা যায়নি।

কসবা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ মহিউদ্দিন আহমেদ জানান, সোমবার রাত প্রায় ২টায় লেশিয়ারা গ্রামের মৃত ধন মিয়া মেম্বারের বাড়ির জমির মিয়ার ঘরে একদল ডাকাত হানা দেয়। ডাকাতদল অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ডাকাতি করে। ডাকাতরা চলে যাওয়ার সময় জমির মিয়া মসজিদের মাইকে ঘোষণা দিলে মানুষ দল বেঁধে এসে ডাকাত দলের ওপর হামলা চালায়। এ সময় ডাকাত দলের দুই সদস্যকে আটক করে গণপিটুনি দিলে ঘটনাস্থলেই তারা মারা যায়। পুলিশ নিহতদের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।