১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রধানমন্ত্রীর কুড়িগ্রাম সফর কাল ॥ শহরে ঈদ উৎসব

স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম ॥ জাহানারা বেগম। বয়স ২৬ বছর। ধরলা পারের সওদাগর পাড়া থেকে প্রায় তিন কি.মি. পথ হেঁটে কাকডাকা ভোরে কুড়িগ্রাম কলেজ মাঠে এসেছেন বিশাল আকৃতির নৌকার মঞ্চ দেখতে। মানুষের বাড়িতে কাজ করেন, সারাদিন সময় পান না। তাই ভোরে এসেছেন। এত মানুষের ভিড়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে একনজর দেখতে না পারলেও বিশাল মঞ্চটা দেখেই তার মনের আশা পূরণ করছেন তিনি। শুধু ধরলা পারের জাহানারা বেগম নয়, কাকডাকা ভোর থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত শত শত পুরুষ-মহিলা এই নৌকার মঞ্চ আর বিভিন্ন রংয়ের গেট দেখতে শহরে আসছেন।

আগামীকাল বৃহস্পতিবার কুড়িগ্রামে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফর। এ উপলক্ষে কুড়িগ্রাম শহরে চলছে ঈদের মত উৎসব। চারদিকে শুধু সাজ সাজ রব। বিভিন্ন ব্যানার আর কয়েক শ’ গেট দিয়ে সাজানো হয়েছে সারা শহর। ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রীর সফর এলাকায় নিñিদ্র নিরাপত্তার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। বিভিন্ন উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন জেলার রাজনীতিকগণ আসছেন। ব্যস্ত সময় পার করছেন জেলা ও উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ এবং জেলা প্রশাসনের কর্মকমর্তা-কর্মচারীরা। প্রতিদিন বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠন মিটিং মিছিল করছে। চলছে দিনরাত মাইকিং। বাংলাদেশের সঙ্গে একীভূত হওয়া ১শ’ ১১টি ছিটমহলের মধ্যে প্রথমবারের মতো কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ির দাসিয়ারছড়ায় প্রধানমন্ত্রী আসছেন। এখানে ছিটের মানুষদের সঙ্গেও মতবিনিময় সভা করবেন প্রধানমন্ত্রী। ঘোষণা দিবেন বিলুপ্ত দাসিয়ারছড়া ছিটমহল মুজিব-ইন্দিরা দাসিয়ারছড়া ইউনিয়ন। প্রধানমন্ত্রী নিজেই ৯৩টি পরিবারের মাঝে সংযোগ লাইন উদ্বোধন করবেন। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রী কুড়িগ্রামের জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কোর্ট ভবন এবং ২৫০ শয্যার হাসপাতাল ভবনসহ বিভিন্ন কলেজ ভবন ও প্রতিষ্ঠান উদ্বোধন করবেন। শহরকে সুন্দর করে সাজানো হয়েছে এখন শুধু তাকে বরণের অপেক্ষার প্রহর গুণছেন নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষ।

প্রধানমন্ত্রীকে বরণ করে নেয়ার জন্য প্রায় সব প্রস্তুতি শেষ করেছে কুড়িগ্রামবাসী। ঠেলা শ্রমিক শামসুল (৩৮) ও দারগআলী (৫৫) জানান, বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা কুড়িগ্রামে আসছেন, তাই আমরা সেদিন কাজ বন্ধ রেখে তার কথা শুনতে যাব। ব্যবসায়ী মানিক ঘোষ (৫৫) জানান, জননেত্রী শেখ হাসিনার আগমন উপলক্ষে সারা জেলায় এখন আনন্দের বন্যা। জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সাঈদ হাসান লোবান জানান, বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে জেলার ১শ’ ১৬ কোটি টাকা ব্যয়ে ৭ টি সমাপ্ত প্রকল্পের উদ্বোধনের পাশাপাশি আরও ২৫টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন প্রধানমন্ত্রী।