২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইসরায়েলের সাথে সম্পর্ক বাড়াতে উদগ্রীব ভারত

অনলাইন ডেস্ক ॥ ভারতের রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জি ইসরায়েলে এক সফর শুরু করেছেন।

এই প্রথম ভারতের কোনও সর্বোচ্চ পর্যায়ের নেতা ইসরায়েল গেলেন। এ সফরের তিনদিন তিনি কাটাচ্ছেন ইসরাইলে।

আর একদিনের জন্য তিনি ফিলিস্তিনেও গেছেন।

আরব লীগের বাইরে বিশ্বের প্রথম যে দেশ ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিয়েছিল সেটি হলো ভারত।

পর্যবেক্ষকরা বলছেন, ইসরায়েলের সঙ্গে ভারতের যে সম্পর্ক, তা আরো ঘনিষ্ঠ করার ক্ষেত্রে ভারতের যে আর কোন দ্বিধা নেই, রাষ্ট্রপতির সফর তারই প্রমাণ।

ইসরায়েলে প্রণব মুখার্জির এই সফর কতটা গুরুত্বপূর্ণ? ভারত কি তাহলে ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠনের দাবি থেকে ধীরে ধীরে সরে আসছে?

দিল্লির জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক অশ্বিনী রায় বলছেন, "কয়েক বছরে ধরেই ইসরায়েলের সাথে সম্পর্ক উন্নতি হচ্ছে এবং সেটা হচ্ছে আরব দেশগুলোর সাথে সু সম্পর্ক রেখেই।"

বিবিসি বাংলাকে তিনি বলেন প্রেসিডেন্ট যখন গেছেন তখন সেটা কেবিনেটের সমর্থন নিয়েই গেছেন। সুতরাং সেখানে সরকারের অবস্থানেরই প্রতিফলন ঘটেছে।

ইসরায়েলের সাথে সম্পর্ক উন্নয়নে ফিলিস্তিনের সাথে সম্পর্কে কেমন প্রভাব হবে এমন এক প্রশ্নের জবাবে তিনি মি. রায় বলেন, "ফিলিস্তিনের স্বাধীনতার ব্যাপারে ভারতের দ্বিমত নেই ও ভারত প্রথম থেকেই তা সমর্থন করছে। পাশাপাশি ইসরায়েলের সাথে সম্পর্ক উন্নতি করা হচ্ছে। প্রেসিডেন্টের সফর তারই প্রতিফলন।"

তিনি বলেন, " ফিলিস্তিনের ব্যাপারে ভারতের অবস্থান অত্যন্ত পরিষ্কার। তাদের স্বায়ত্তশাসন ও স্বাধীনতার প্রতি সমর্থন রয়েছে ভারতের। আর এখন অনেক আরব দেশও ইসরায়েলের সাথে সম্পর্ক তৈরি করতে শুরু করছে।"

মি. রায়ের মতে ইসরায়েল ও আরবের সাথে এখন একযোগে সম্পর্ক রাখার বিষয়টিই উঠে আসছে প্রেসিডেন্টের সফর থেকে।

সূত্র: বিবিসি বাংলা