১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আরাকান আর্মির সেকেন্ড ইন কমান্ড ডাঃ রেনিন রাজস্থলী থেকে গ্রেফতার

আরাকান আর্মির সেকেন্ড ইন কমান্ড ডাঃ রেনিন রাজস্থলী থেকে গ্রেফতার

নিজস্ব সংবাদদাতা, রাঙ্গামাটি, ১৪ অক্টোবর ॥ মিয়ানমারের বিচ্ছিন্নতাবাদী গ্রুপ আরাকান আর্মির শীর্ষ পর্যায়ের নেতা বহুল আলোচিত ডাঃ রেনিন সুয়েকে অবশেষে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। মঙ্গলবার গভীর রাত থেকে অভিযান পরিচালনা করে রাত সাড়ে তিনটার দিকে রাঙ্গামাটির রাজস্থলী উপজেলার ইসলামপুরের একটি নির্মাণাধীন মসজিদ থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তার কাছ থেকে একটি ল্যাপটপ, নেদারল্যান্ডসের একটি পাসপোর্ট, সে দেশের একটি সনদ, ইসলামী ব্যাংকের একটি এটিএম কার্ড এবং ভারতীয় ও বাংলাদেশী মুদ্রা উদ্ধার করা হয়েছে। আটকের পর তাকে রাজস্থলী থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে সন্ত্রাস দমন আইন ও বিদেশী অনুপ্রবেশ আইনে দুটি মামলা রয়েছে। ধরা পড়ার পর বিদেশী মুদ্রা রাখার দায়ে তার বিরুদ্ধে আরও একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

রাজস্থলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অহিদ উল্লাহ সরকার জানান, তাকে গ্রেফতারের জন্য দীর্ঘদিন ধরে সোর্স লাগিয়ে রাখা হয়েছিল। সোর্সের খবরের ভিত্তিতে মঙ্গলবার রাতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এদিকে, গ্রেফতারের পর রেনিন সুয়ে প্রাথমিকভাবে পুলিশকে জানিয়েছে, ঘটনার পর তিনি দেশ থেকে পালিয়ে যান। গত ১২ অক্টোবর তিনি দিল্লী থেকে আসেন। তার স্ত্রী ও দু’সন্তান কোথায় আছে এখনও জানা যায়নি। পুলিশ জানায়, মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লেখাপড়া করা এই আরাকান আর্মির শীর্ষ নেতা অত্যন্ত সুচতুর। তাকে রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য প্রস্তুতি চলছে বলে পুলিশ জানায়। গ্রেফতারকৃত ডাঃ রেনিন আরাকান আর্মির সেকেন্ড ইন কমান্ড বলেও পুলিশের একটি সূত্রে জানানো হয়েছে।

এদিকে আরাকান আর্র্মির নেতা ডাঃ রেনিন সুয়েকে বুধবার সন্ধ্যায় কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে রাজস্থলী থানা পুলিশ রাঙ্গামাটি অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাব্রীনা আলীর আদালতে হাজির করে। তাকে সন্ত্রাস দমন আইনের মামলায় ১০ দিনের রিমা- চাইলে আদালত শুনানি শেষে ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করে। তার বিরুদ্ধে পুলিশ অবৈধভাবে বিদেশী অর্থ রাখার দায়ে বুধবার রাজস্থলী থানায় আরও একটি মামলা দায়ের করেছে বলে রাজস্থলী থানার ভারপাপ্ত কর্মকর্তা জানান। এ নিয়ে তার বিরুদ্ধে তিনটি মামলা হলো