২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

যৌতুক না পেয়ে গৃহবধূর শরীরে গরম পানি

নিজস্ব সংবাদদাতা রূপগঞ্জ থেকে জানান, নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে দাবিকৃত যৌতুকের এক লাখ টাকা না দেয়ায় ভাতের গরম পানি দিয়ে মাকসুদা আক্তার (২২) নামে এক গৃহবধূর শরীর ঝলসে দিয়েছে স্বামীসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন। শুধু তাই নয়, এ ঘটনায় কোর প্রকার থানা পুলিশ করে ঝামেলার সৃষ্টি করা হলে ওই গৃহবধূকে হত্যা করা হবে বলেও হুমকি দেয়া হয়। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার হাটাব টেকপাড়া এলাকায় ঘটে এ ঘটনা। গৃহবধূ মাকসুদা আক্তার উপজেলার ইসলামবাগ কালি এলাকার সাজু মিয়ার মেয়ে।

সাজু মিয়া জানান, ৩ বছর পূর্বে হাটাব টেকপাড়া এলাকার বেলায়েত হোসেনের ছেলে জসিম মিয়ার সঙ্গে তার মেয়ে মাকসুদা আক্তারের বিয়ে হয়। বিয়েতে স্বর্ণালংকার, নগদ এক লাখ টাকা ও একটি সেলাই মেশিন যৌতুক হিসেবে প্রদান করেন তিনি। কয়েক দিন ধরে স্বামী জসিমসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন মাকসুদা আক্তারের কাছে ফের এক লাখ টাকা যৌতুক দাবি করে আসছে। দাবিকৃত টাকা দিতে অস্বীকার করায় বিভিন্ন সময় শারিরিক নির্যাতনও করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে ফের যৌতুকের টাকা দাবি করা হয়। দাবিকৃত যৌতুকের টাকা না দেয়ায় স্বামী জসিম উদ্দিন, শ্বশুর বেলায়েত হোসেন, শাশুড়ি চেহার বানু, দেবর শামিমসহ শ্বশুর বাড়ির লোকজন গৃহবধূ মাকসুদা আক্তারকে বিবস্ত্র করে ভাতের গরম পানি শরীরে ঢেলে দেয়। এ সময় ওই গৃহবধূর আত্মচিৎকারে আশপাশের লোকজন ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে। বর্তমানে গৃহবধূ মাকসুদা আক্তারকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।