২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিপিএলে বিদেশী তারকার মেলা

বিপিএলে বিদেশী তারকার মেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল-টি২০) এখন মাঠে গড়ানোর অপেক্ষা শুধু। সবকিছুই চূড়ান্ত হয়ে গেছে। আনুষ্ঠানিকভাবে একটি করে ধাপ এগিয়ে যাবে, আর ২০ নবেম্বর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দিয়ে বিপিএলের তৃতীয় আসর শুরু হওয়ার সময় ঘনিয়ে আসবে। বিপিএলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর মাঝখানে একদিন বিরতি দিয়ে অবশ্য খেলা শুরু হবে ২২ নবেম্বর। ফাইনাল হবে ১৫ ডিসেম্বর। প্রতিদিন ২টি করে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। প্রথমটি শুরু হবে দুপুর ২টায়। পরেরটি রাত পৌনে ৭টায় শুরু হবে। ঢাকা ও চট্টগ্রামে হবে খেলাগুলো। চট্টগামে ৪-৫ দিনের খেলা হবে। বেশির ভাগ ম্যাচই হবে ঢাকায়, মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে। এ লীগের সবচেয়ে আকর্ষণীয় দিক ক্রিকেটার কেনার ‘পেয়ার বাই চয়েজ’ অনুষ্ঠিত হবে ২৬ অক্টোবর। বুধবার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিল বিপিএল গবর্নিং কাউন্সিল। সেখানে জানানো হলো, উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বলিউডের হৃত্বিক রোশান, জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ, কে কে থাকবেন। আর দেশের শিল্পীদের মধ্যে সবিনা ইয়াসমিন, রুনা লায়লা ও মমতাজের মধ্যে যে কোন একজন মঞ্চ মাতাবেন। তবে আকর্ষণের বিষয় হচ্ছে, যে দুটি দল নিরাপত্তার কারণে বাংলাদেশ সফরে আসেনি। সফর স্থগিত করেছে। সেই অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটাররাও বিপিএলে অংশ নেবে।

আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে বিপিএলের সব বিষয় নিয়েই জানানো হয়। বিপিএল গবর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিকই বিস্তারিত জানান। তিনি বলেন, ‘প্লেয়ার বাই চয়েজে বিডিংয়ের প্রসেস হবে প্রতি দুই রাউন্ডে একবার করে লটারি। ছয়টি দল আছে (ঢাকা, চট্টগ্রাম, সিলেট, বরিশাল, রংপুর, কুমিল্লা)। প্রথম রাউন্ডে এক থেকে ছয় হবে, আবার পরের রাউন্ডে ছয় থেকে এক ডাকবে। এভাবে প্রতি দুই রাউন্ডে একবার করে লটারি হবে।’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘সেমিফাইনাল হবে আইপিএলের মতো। গ্রুপ পর্বের শীর্ষ দুই দল খেলবে প্রথম সেমিফাইনাল। জয়ী দল উঠে যাবে ফাইনালে। তৃতীয় ও চতুর্থ দল খেলবে এলিমিনেটর। হেরে যাওয়া দল বাদ পড়ে যাবে। আর দ্বিতীয় সেমিফাইনালে খেলবে এলিমিনেটরে জয়ী দল ও প্রথম সেমিতে হারা দল।’

বিদেশী ক্রিকেটারদের তালিকা প্রকাশ করতে গিয়ে সদস্য সচিব জানান, ‘১৯৬ বিদেশী ক্রিকেটার খেলার জন্য নিবন্ধন করেছে। ইংল্যান্ড ও পাকিস্তানের ৫৩, ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৩৪, শ্রীলঙ্কার ২৫, দক্ষিণ আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়া ৪, নিউজিল্যান্ড ২, জিম্বাবুইয়ে ৬, অন্যান্য দেশগুলো থেকে ১৫ জন।’ বিদেশী ক্রিকেটারদের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকও জানানো হয়েছে, ‘এ’ গ্রেড ৭০ হাজার ডলার, ‘বি’ গ্রেড ৫০ হাজার, ‘সি’ গ্রেড ৪০ হাজার ও ‘ডি’ গ্রেড ৩০ হাজার ডলার।’

দেশের কতজন ক্রিকেটার তালিকায় জায়গা করে নিয়েছে তাও জানিয়েছেন মল্লিক, ‘দেশের ১২৩ ক্রিকেটারকে তালিকায় রাখা হয়েছে। আমাদের নির্বাচক, টেকনিক্যাল কমিটি ও বোর্ড পরিচালকরা ঠিক করেছেন। ক্রিকেটারদের জন্য আইকন ক্রিকেটার সর্বোচ্চ ৩৫ লাখ, ‘এ’ গ্রেড ২৫ লাখ, ‘বি’ গ্রেড ১৮ লাখ, ‘সি’ গ্রেড ১২ লাখ ও ‘ডি’ গ্রেড ৫ লাখ সর্বোচ্চ পাবে। লোকাল ক্রিকেটারদের কোন ফ্র্যাঞ্চাইজি সরাসরি নিতে পারবে না। পেয়ার বাই চয়েজেই নিতে হবে।’

৬ দলের ৬ আইকন ক্রিকেটার থাকবেন। তাদের নামও ঘোষণা করা হয়েছে। তবে কোন দলে কোন আইকন তা এখনই ঘোষণা করেননি মল্লিক, ‘সপ্তাহখানেকের মধ্যে আইকন ক্রিকেটারদের দল ঠিক করে দেয়া হবে। যাতে আইকন ক্রিকেটাররা দল নির্বাচনের সঙ্গে সম্পৃক্ত থাকতে পারে, পেয়ার বাই চয়েজে দলের টেবিলে থেকে ক্রিকেটারদের নিতে পারেন। আইকন সাকিব (আল হাসান), তামিম (ইকবাল), (মাহমুদুল্লাহ) রিয়াদ, মুশি (মুশফিকুর রহীম), নাসির (হোসেন) ও মাশরাফি (বিন মর্তুজা)।’

যে তালিকা বিদেশীদের করা হয়েছে, এর বাইরে কিছু নামী ক্রিকেটাররা আছেন। যাদের দলগুলো নিজেদের উদ্যোগে নেবে। মল্লিক তাই জানালেন, ‘এই লিস্টের বাইরেও কিছু কিছু টপ গ্রেডেড ক্রিকেটার দলগুলো সরাসরি নিয়ে নিয়েছে নিজেরা যোগাযোগ করে। কুমার সাঙ্গাকারা, তিলকারতেœ দিলশান, ডেসকাট, শহীদ আফ্রিদি, ক্রিস গেইল, শোয়েব মালিক, থিসারা পেরেরা। সাঙ্গা ঢাকা ডিনামাইটসে। মালিক কুমিল্লায়। গেইল বরিশালে। থিসারা পেরেরা রংপুরে। চট্টগ্রাম নিয়েছে দিলশানকে। আফ্রিদি সিলেটে। তারা ইতোমধ্যে তালিকা থেকে নাম তুলে নিয়েছে।’ সঙ্গে যোগ করলেন, ‘একটি দল বিদেশী নিবন্ধন করাতে পারবে ১২ জন। প্রতি ম্যাচে সর্বোচ্চ ৪ বিদেশী খেলানো বাধ্যতামূলক। আর আমাদের ওই তালিকা থেকে যে কোন তিন ক্রিকেটার প্রতিটি দলকে নিতেই হবে। দেশী ক্রিকেটারদের খেলানোয় বাধা নেই।’

বিপিএল গবর্নিং কাউন্সিল বুধবার এ নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করে। যেখানে বিপিএলের পরিচালক শেখ সোহেল ও জালাল ইউনুস উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের কথা বলতে গিয়ে জালাল ইউনুস জানান, ‘এখানে ভারত থেকে শিল্পী আসবে হৃত্বিক রোশান, জ্যাকলিন ফার্নান্দেজ, কে কে। দেশের মধ্যে সবিনা ইয়াসমিন, রুনা লায়লা ও মমতাজের মধ্যে যে কোন একজন। গ্ল্যামারের বিষয়ে আছে এখানে। কিছুটা গ্ল্যামার নিয়ে আসার জন্য ভারত থেকে শিল্পী আনা হচ্ছে। আমাদের এখানে আরও কিছু থাকবে। এলআরবি থাকতে পারে, চিরকুট থাকবে।’