২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পার্বতীপুরের টাকা আত্মসাতের ঘটনায় একজন লাঞ্চিত

পার্বতীপুরের টাকা আত্মসাতের ঘটনায় একজন লাঞ্চিত

নিজস্ব সংবাদদাতা, পার্বতীপুর ॥ পুলিশের চাকুরী দেওয়ার প্রলোভন দিয়ে জনৈক মেয়ের সাথে অবৈধ সম্পর্ক স্থাপন ও পৌনে চার লক্ষ টাকা আত্মসাতের ঘটনায় পার্বতীপুরের স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আখতার হোসেন পার্বতীপুর শহরে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে ক্ষতিগ্রস্থদের দ্বারা লাঞ্চিত হয়েছেন।ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার বিকেল ৫ টায়। এ সময় মেয়ের মা,ভাই ও স্বজনরা দোকানে ঢুকে তার উপর চড়াও হয়ে কিল-ঘুসী মেরে পরিধেও কাপড় ছিড়ে ফেলে । মূর্হুতেই সেখানে ভিড় জমে উঠে। সামনের রাস্তায় কিছু সময়ের জন্য যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ফোর্স ঘটনাস্থলে পৌছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। বড় ধরনের অঘটন সংঘটিত হওয়ার আশংকায় আখতারকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। স্থানীয়ভাবে শালিশের মাধ্যমে বিষয়টির নিস্পত্তির মুচলেকা দিয়ে রাত ১০টায় আখতার হোসেন থানা থেকে বেরিয়ে আসে।সূত্রমতে আখতারের গ্রামের বাড়ী পলাশবাড়ী ইউনিয়নের হলদিবাড়ীতে। ২০ বছর বয়সী মেয়েটি তার নিকটতম প্রতিবেশী। ইতোপূর্বে মেয়ের সাথে রেকর্ডকৃত অশ্লীল ফোনালাপ হট কেকের মত মোবাইল ও ফেসবুকের মাধ্যমে চারিদিকে ছড়িয়ে পড়লে মানসম্ভ্রম ও লজ্জায় মেয়ের বাইরে চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। আখতারের লাম্পট্যপূর্ন আচরন ও অর্থ উদ্ধারের জন্য স্থানীয় প্রভাবশালীদের দ্বারস্থ হলেও প্রতিকার পাননি বলে মেয়ের পিতা আব্দুর রশীদ জানান। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ হাফিজুল ইসলাম প্রামানিক ও সাধারন সম্পাদক মোঃ রেজাউল করিম জানান, ঘটনাটি তারা শুনেছেন। ব্যক্তিগতভাবে কেউ কোন অপকর্ম করলে দল তার দায়ভার নিবে না। যোগাযোগ করলে পার্বতীপুর মডেল থানার ওসি মাহমুদুল আলম বৃহস্পতিবার সকাল ১০.৩০ মিনিটে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।