২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ছয়মাস পর মায়ানমারের জঙ্গল থেকে বাড়ি ফিরেছেন চুয়াডাঙ্গার সুমন

ছয়মাস পর মায়ানমারের জঙ্গল থেকে বাড়ি ফিরেছেন চুয়াডাঙ্গার  সুমন

নিজস্ব সংবাদাতা, চুয়াডাঙ্গা ॥ দীর্ঘ ছয়মাস পর মায়ানমারের জঙ্গল থেকে সুমন (১৬) নামে পাচারের শিকার এক কিশোর ফিরেছেন নিজ মাতৃভূমি চুয়াডাঙ্গায় । বৃহস্পতিবার বেলা ১১ টায় বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি, চুয়াডাঙ্গা ইউনিটের মাধ্যমে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বড় বলদিয়া গ্রামের সুমনকে অভিভাবকদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

ফিরে আসা কিশোর সুমন জানায়, পার্শ্ববর্তী ডিহি কেষ্টপুর গ্রামের দালাল মাসুদ মোল্লা মালয়েশিয়ার পাইপ কারখানায় চাকরি দেয়ার নাম করে পানিপথে তাকে মায়ানমার পাঠায়। দীর্ঘ ৬ মাস সাগরে ও মায়ানমার জঙ্গলে অবর্ণনীয় দুঃখ-দুর্ভোগ পোহাতে হয় তাকে। সাগরে একমুঠো ভাত ও ৫০ গ্রাম পানি আর নদী-জঙ্গলের কাঁকড়া খেয়ে অমূল্য এই জীবনটিকে বাঁচিয়ে রাখে সে কোনরকমে। পরে মায়ানমার নৌবাহিনীর হাতে ধরা পড়ার পর দেশে ফেরত আসে। চাচা সাজ্জাত হোসেন জানান, সুমনকে জঙ্গলে আটকে রেখে তাদের নিকট থেকে নগদ ২ লাখ ৩০ হাজার টাকা আদায় করে দালাল চক্র। চাচা স্থানীয় সাংবাদিকদেরকে বলেন, দালাল মাসুদ মোল্লার বিরুদ্ধে তার অবিভাবকরা আদালতে মামলা করবেন ।

রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি চুয়াডাঙ্গা ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক ফজলুর রহমান জানান, ভিকটিমের পরিবারকে প্রয়োজনীয় আইনী সহায়তা দেওয়া হবে।