২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পুঁজিবাজারে দরপতন চলছেই

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগকারীদের আস্থাহীনতা বাড়ছেই। মূলত আস্থার সংকটে থাকার কারণেই প্রতিনিয়তই কমছে বাজারের সূচক। বুধবারের ধারাবাহিকতায় দেশের উভয় বাজারে বৃহস্পতিবার সব ধরনের সূচকই কমেছে। উভয় বাজারেই আগের দিনের তুলনায় বেড়েছে লেনদেনের পরিমাণ। প্রকৌশল খাতের নতুন তালিকাভুক্ত কোম্পানি কেডিএস এক্সেসরিজের লেনদেন শুরুর দিনে খাতটির বেশিরভাগ কোম্পানির দর বেড়েছে। এছাড়া অন্যান্য খাতের শেয়ারের দরে কিছুটা মিশ্রভাব দেখা গেছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, সকালে কিছুটা ইতিবাচক প্রবণতা দিয়ে শুরুর পরেই সূচকের পতন ঘটতে থাকে। এরপরেই আবার সূচক কিছুটা ঘুরে দাঁড়ায়। আবারো পতনের ধারা ফিরে আসে। এভাবে সূচকের ওঠানামা পরে ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্য সূচক ৩৯ পয়েন্ট কমে ৪ হাজার ৬৭৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ১২ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ১১৪ পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক ২১ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৭৬৬ পয়েন্টে।

বৃহস্পতিবার ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪০৪ কোটি টাকা। যা আগের দিনের তুলনায় ৯৫ কোটি ৫৮ লাখ টাকা বেশি। আগের দিন এ বাজারে ৩০৮ কোটি ৯০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

পুরোদিনে ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয় ৩২০টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৯৮টির, কমেছে ১৭৬টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৬টির শেয়ার দর।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দশ কোম্পানি হলো - কেডিএস এক্সেসরিজ, লাফার্জ সুরমা সিমেন্টস, বেক্সিমকো ফার্মা, গ্রামীণফোন, ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ, আমান ফিড, সিভিও পেট্রোকেমিক্যাল রিফাইনারি, ব্র্যাক ব্যাংক, এমারেল্ড অয়েল এবং সিটি ব্যাংক।

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ৩৫ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক ১২৪ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৩১৯ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২২৮টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৬৫টি কোম্পানির, দর কমেছে ১৩২টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩১টি কোম্পানির।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : কেডিএস এক্সেসরিজ, ইউনাইটেড এয়ার, সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইল, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, এ্যাপোলো ইস্পাত, ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড, বে´িমকো ফার্মা, আমান ফিড, বে´িমকো লিমিটেড ও বিচ হ্যাচারী।