১৮ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পঞ্চগড়ে বিলুপ্ত ৩৬ ছিটে ভূমির মালিকানা স্বত্ব নির্ধারণ

স্টাফ রিপোর্টার, পঞ্চগড় ॥ পঞ্চগড় জেলায় সদ্য বিলুপ্ত ৩৬ ছিটমহলে শুরু হয়েছে জমির মালিকানাস্বত্ব ও বিশেষ খতিয়ানে কলমি নকশার লিপিবদ্ধ কার্যক্রম। চলবে আগামী ১৫ নবেম্বর পর্যন্ত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে বিলুপ্ত গাড়াতী ছিটমহলের মারুপাড়ায় আনুষ্ঠানিকভাবে জমির মালিকানাস্বত্ব ও বিশেষ খতিয়ানে কলমি নকশার লিপিবদ্ধ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। সদর উপজেলার ইউএনও লায়লা মুনতাজেরী দীনা এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। এ সময় পঞ্চগড় সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ইলিয়াছ মেহেদী, পঞ্চগড় থানার অফিসার ইনচার্জ মোমিনুল ইসলাম, সদর উপজেলা কানুনগো মকছেদ আলী উপস্থিত ছিলেন।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, পুরনো নথিপত্র বিশ্লেষণ এবং দখলের ভিত্তিতেই পরিচালিত হবে এ কার্যক্রম। ভূমি মালিকানাস্বত্ব নির্ধারণ কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে আহ্বায়ক করে আট সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ ছাড়া মাঠ পর্যায়ে কার্যক্রম সম্পন্নের জন্য উপজেলার কানুনগোকে আহ্বায়ক করে সাত সদস্যের একটি ওয়ার্কিং কমিটিও গঠন করা হয়েছে। এসব কমিটির সদস্যরা ছিটমহলের মাঠ পর্যায়ে গিয়ে ভূমি মালিকানাস্বত্ব নির্ধারণ করবেন।

সূত্র জানায়, ভারতে থাকা অনেক নথিপত্র পাওয়া গেছে। উভয় দেশের ছিটমহলে আগের আমলের কিছু নথিপত্র সংরক্ষিত রয়েছে। সাবেক ছিটমহলের ভূমির মালিকানাস্বত্ব নির্ধারণকালে এসব নথিপত্রের সঙ্গে প্রধানত দখলের ভিত্তিতে কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। এই কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য তিনটি কমিটি কাজ করবে।