২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মাতাল হাঁসের কাণ্ড

মাতাল হাঁসের কাণ্ড

মদ খেয়ে মানুষের মাতলামির খবর নতুন নয়। কিন্তু পশুপাখি মদ খেয়ে মাতলামি করেছে এটা শুনলে বিষয়টিকে যে কেউ আজগুবি গল্প বলে উড়িয়ে দেবে। কিন্তু ঘটনাটি পুরোপুরি সত্য। সম্প্রতি দক্ষিণ ইংল্যান্ডের ডেভন শহরে এমনই এক ঘটনা ঘটেছে। স্টার নামে একটি পাতিহাঁস ভুল করে ঢুকে পড়ে এক পানশালায়। সেখানে অপেক্ষমাণ খদ্দেরের জন্য তৈরি করা হচ্ছিল ককটেল। হাঁসটি এক লাফে টেবিলের ওপর উঠে ওই গ্লাসে ঠোঁট ঢুকিয়ে চুমুক দিতে থাকে। বিষয়টি প্রত্যক্ষ করে উপস্থিতরা। অনেকে মোবাইলে ধারণ করে এই দৃশ্য।

পরের ঘটনা আরও মজার। ককটেলের বোতল থেকে ঠোঁট ওঠানোর পর থেকেই মাতলামো শুরু করে পাতিহাঁসটি। এরপর পানশালা থেকে বের হয়ে এটি মেগি নামে একটি কুকুরের সঙ্গে দ্বন্দ্বে জড়ায়। পরে স্টারকে কামড়ে আহত করে মেগি। কুকুরটি স্টারের লম্বা ঠোঁটে কামড় বসায়। পরে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয় হাঁসটির মালিক ব্যারি হেইম্যান। কুকুরটির মালিকও অবশ্য তিনিই। ব্যারি বলেন, বিষয়টি জানার পর আমি কুকুরের সঙ্গে স্টারের যুদ্ধের ভিডিও ইউটিউবে শেয়ার করি। অল্প সময়ের মধ্যেই এটি বহুবার শেয়ার হয়। রীতিমতো তারকা বনে যায় পাতিহাঁসটি। পরের দিন খ্যাতনামা একাধিক পত্রিকায় ফলাও করে এই খবর ছাপা হয়।

ব্যারি হেইম্যান তার ফেসবুক পাতায় লিখেছেন, স্টার আর মেগির যুদ্ধ সমাপ্তির দৃশ্য আরও চমৎকার ছিল। কিছু সময় পর স্টার এগিয়ে গিয়ে মেগির মুখে চুমু খায়। আমার মনে হয় তখন নেশা কেটে গিয়েছিল হাঁসটির। তিনি আরও বলেন, স্টার এবং মেগি দীর্ঘদিন আমার সঙ্গে ঘুরতে বেরিয়েছে। আমি তখন এদের মধ্যে দ্বন্দ্ব দেখিনি।

- ইনডিপেনডেন্ট ও ডেইলি মেইল অবলম্বনে নাজিম মাহমুদ।