১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

করুনারত্নে-চান্দিমালের সেঞ্চুরিতে রানের পাহাড় লঙ্কানদের

  • গল টেস্ট

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গল টেস্টের প্রথম দিনেই ওপেনার দিমুথ করুনারতেœ সেঞ্চুরি হাঁকিয়ে অপরাজিত ছিলেন। তাকে দারুণ সঙ্গ দিয়ে অর্ধশতক হাঁকিয়ে ৭২ রানে অপরাজিত ছিলেন দিনেশ চান্দিমাল। দু’জন ১৪৯ রানের জুটি গড়ে এগিয়ে নিয়েছিলেন দলকে শক্ত অবস্থানে। দ্বিতীয় দিনে ১৪ রানের জন্য ডাবল সেঞ্চুরি মিস করেছেন করুনারতেœ, তবে চান্দিমাল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন। তৃতীয় উইকেটে তাদের ২৩৮ রানের জুটিতে রানের পাহাড় গড়েছে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা। ৪৮৪ রানে শেষ হয় তাদের প্রথম ইনিংস। দিনশেষে স্বস্তিতে নেই সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ৬৬ রান তুলতেই তারা হারিয়েছে ২ উইকেট। এখনও ক্যারিবীয়রা পিছিয়ে ৪১৮ রানে।

দুই উইকেটে ২৫০ রান নিয়ে প্রথম দিনেই বেশ ভাল অবস্থান নিয়ে ফিরে গিয়েছিল শ্রীলঙ্কা। ১৩৫ রান করে তখনও ব্যাট করছিলেন করুনারতেœ। আগের দিনই এ দু’জনের জুটিতে উঠেছিল ১৪৯ রান। দ্বিতীয় দিনে করুনারতেœকে দারুণ সঙ্গ দিয়ে চান্দিমাল জুটিটাকে আরও বড় করেছেন। আগের দিনের শক্ত অবস্থান থেকে পূর্বের মতোই স্বাচ্ছন্দ্যে শুরু করেছিলেন করুনারতেœ-চান্দিমাল। দলের অবস্থানকে আরও পাকাপোক্তভাবে দৃঢ় করেন দু’জন। ক্যারিবীয় বোলাররা বিন্দুমাত্র প্রভাব বিস্তার করতে পারেননি। তৃতীয় উইকেটে সবমিলিয়ে ২৩৮ রান যোগ করেন দু’জন। ডাবল সেঞ্চুরির দিকে এগিয়ে যাচ্ছিলেন করুনা। কিন্তু তাকে থামিয়েছেন অনিয়মিত স্পিনার মারলন স্যামুয়েলস নিজের বলেই ক্যাচ লুফে। কিন্তু এর আগে দলের অবস্থান দৃঢ় করে ফেলেছেন তিনি। করুনারতেœ ক্যারিয়ার সেরা ১৮৬ রান করেন। তিনি ৩৫৪ বল খেলে ১৬ চার ও ১ ছক্কা হাঁকিয়েছেন। তবে চান্দিমালকে থামানো যায়নি। চতুর্থ উইকেটে তিনি অধিনায়ক এ্যাঞ্জেলো ম্যাথুসের সঙ্গে আরও ৮৬ রান যোগ করে দলকে বড় একটি সংগ্রহ এনে দেন। চান্দিমাল ক্যারিয়ারের পঞ্চম শতক হাঁকান। তিনি ২৯৮ বলে ১৬ চার ও ২ ছক্কায় ১৫১ রান করেন। চান্দিমালের বিদায়ের পর ম্যাথুসকে আর কেউ যোগ্য সমর্থন দিয়ে উইকেটে বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। মাত্র ৫৯ রানে শেষ ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলে লঙ্কানরা দেবেন্দ্র বিশুর ঘূর্ণিতে বেসামাল হয়ে। শেষ পর্যন্ত ৪৮৪ রানে গুটিয়ে যায় লঙ্কানদের প্রথম ইনিংস। বিশু ১৪৩ রানের বিনিময়ে দখল করেন ৪ উইকেট আর পেসার জেমস টেইলর নেন দুটি।

বিশাল রানের পাহাড় নিয়ে নিজেদের প্রথম ইনিংস শুরু করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। দেখেশুনেই শুরু করেছিলেন দুই ওপেনার ক্রেইগ ব্রেথওয়েট ও শাই হোপ। কিন্তু তাদের বেশিক্ষণ জুটিবদ্ধ থাকতে দেননি অভিজ্ঞ স্পিনার রঙ্গনা হেরাথ। দ্বিতীয় দিনের শেষ সেশনে তিনিই প্রথম ছোবল হানেন। দারুণ খেলতে থাকা ব্রেথওয়েটকে ফিরিয়ে দেন এলবিডব্লিউ’র ফাঁদে ফেলে। দলীয় ৩৩ রানে প্রথম উইকেট হারানো ক্যারিবীয়রা আরও সতর্ক হয়েছিল। কিন্তু আরেক ওপেনার হোপ দিন শেষ হওয়ার মাত্র ৬ ওভার আগে হেরাথের ফ্লাইট বুঝতে পারেননি। সরাসরি বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেলেন ২৩ রান করে। বাকিটা সময় কোনভাবে উইকেট আঁকড়ে থেকে পার করেছেন ড্যারেন ব্রাভো ও স্যামুয়েলস। ২ উইকেটে ৬৬ রান নিয়ে শেষ করা ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাঁধে এখনও ৪১৮ রানের বোঝা।

স্কোর ॥ শ্রীলঙ্কা প্রথম ইনিংস- আগের দিন ২৫০/২; ৯০ ওভার (করুনারতেœ ১৩৫*, চান্দিমাল ৭২*) ও দ্বিতীয় দিন- ৪৮৪/১০; ১৫২.৩ ওভার (করুনারতেœ ১৮৫, চান্দিমাল ১৫১, ম্যাথুস ৪৮; বিশু ৪/১৪৩, টেইলর ২/৬৫)।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ প্রথম ইনিংস- ৬৬/২; ২১ ওভার (হোপ ২৩, ব্রেথওয়েট ১৯, ব্রাভো ১৫*; হেরাথ ২/১৪)।