২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চারপেয়ে সাপের ফসিল

প্রথমবারের মতো খুঁজে পাওয়া চার পেয়ে সাপের ফসিল বিজ্ঞানীদের নতুন করে ভাবতে বাধ্য করাচ্ছে যে সরীসৃপ থেকে কিভাবে সাপের বিবর্তন হয়েছে। যদিও এদের চারটি পায়ের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে, কিন্তু আবিষ্কৃত ফসিলের ঞবঃৎধঢ়ড়ফড়ঢ়যরং ধসঢ়ষবপঃঁং প্রাণীটি যে সাপ তাতে কোন সন্দেহ নেই। সায়েন্স জার্নালে প্রকাশিত তথ্যে এমনটিই নিশ্চিত করেছেন জীবাশ্মবিদ নিক লনগ্রিচ। এর আগে মধ্য জুরাসিক যুগে অর্থাৎ ৭ কোটি বছর আগের প্রাচীন সাপের ফসিল পাওয়া যায়, কিন্তু বর্তমান ফসিলটি ১৬ কোটি বছল পুরনো।

বিশেষজ্ঞদের ধারণা চলাফেরার ক্ষেত্রে পাগুলো কোন কাজে লাগত না। প্রথম নজরে সাপের পাগুলো দৃষ্টিগোচরে আসে না। বিজ্ঞানীরা মনে করছেন সাপটি পা দিয়ে মূলত গর্ত খুড়তে পারত। ফলে সাপের আদি পুরুষদের মাটিতে বাসবাসের যুক্তি অনেক বেশি জোরালো হচ্ছে। ঞবঃৎধঢ়ড়ফড়ঢ়যরং এর রয়েছে দীর্ঘ মেরুদ-। যেখানে ২৭২টি কশেরুকা, এর মধ্যে ১৬০টি সরাসরি মূল দেহের সঙ্গে য্ক্তু, লেজের সঙ্গে নয়। যা বিজ্ঞানীদের ধারণার থেকেও দ্বিগুণ বেশি।

পোর্টসমাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের জীবাশ্মবিদ ডেভিড মার্টিল বলেন, এটি সুনিশ্চিতভাবেই সাপ। অনেকটা বলা যেতে পারে সাপ ও সরীসৃপের মধ্যে সংযোগ স্থাপনকারী এটি। যেমনটা পাখি ও ডাইনোসরের মধ্যে হারিয়ে যাওয়া সংযোগ স্থাপনকারী খোঁজ করতে গিয়ে আমরা আর্কিওপেটরিক্সের অস্তিত্ব পেয়েছি।

সূত্র : কসমিক কালচার