১০ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জয়ে ফেরার মিশন রিয়াল মাদ্রিদ-বার্সিলোনার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিশ্বকাপ ও ইউরো বাছাই ফুটবলের কারণে প্রায় দুই সপ্তাহ বিরতি ছিল ইউরোপের শীর্ষ লীগগুলোর খেলা। অবশেষে আবারও সরগরম হয়ে উঠছে লীগগুলো। আজ থেকে ইউরোপের জনপ্রিয় লীগগুলোর খেলা ফের মাঠে গড়াচ্ছে।

স্প্যানিশ লা লিগায় আজ রাতে মাঠে নামছে দুই পরাশক্তি রিয়াল মাদ্রিদ ও বার্সিলোনা। দুটি দলই নিজেদের সর্বশেষ ম্যাচে হোঁচট খেয়েছে। যে কারণে জয়ের ধারায় ফেরার মিশন তাদের। ঘরের মাঠ সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে রিয়ালের প্রতিপক্ষ লেভান্তে। আর নিজেদের মাঠ ন্যুক্যাম্পে বার্সিলোনা আতিথ্য দেবে রায়ো ভায়োকানোকে। অন্য ম্যাচে মুখোমুখি হচ্ছে এইবার-সেভিয়া, ভ্যালেন্সিয়া-মালাগা ও রিয়াল বেটিস-এস্পানিওল।

আগের ম্যাচে সেভিয়ার কাছে ২-১ গোলে হার মানে বার্সা। আর এ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে রিয়াল। তবে পয়েন্টের দিক দিয়ে কেউই কাউকে ছাড়িয়ে যেতে পারেনি। দু’দলেরই সংগ্রহে আছে সমান ১৫ পয়েন্ট করে। তবে গোল গড়ে এগিয়ে থাকায় পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে রিয়াল। আর চতুর্থ বার্সিলোনা। ১৬ পয়েন্ট নিয়ে এককভাবে টেবিলের শীর্ষে ভিয়ারিয়াল। ১৫ পয়েন্ট নিয়ে তিন নম্বরে সেল্টা ডি ভিগো।

সেভিয়ার কাছে হারায় আজকের ম্যাচে জয় ছাড়া কিছুই ভাবছে না বার্সা। রায়ো ভায়োকানোর বিপক্ষে ম্যাচের আগে তেমনটাই জানিয়েছেন দলটির কোচ লুইস এনরিকে। তিনি বলেন, আগের ম্যাচে আসলেই আমরা বাজে খেলেছি। যেভাবে পরিকল্পনা করা হয়েছিল, কোন কিছুই ঠিকভাবে করেনি খেলোয়াড়রা। এ ছাড়া সেভিয়া দারুণ খেলেছে। বিশেষভাবে তাদের ডিফেন্ডাররা। তবে এসব এখন অতীত। রায়ো ভায়োকানোর বিপক্ষে ম্যাচ নিয়েই আমরা বেশি ভাবছি। এই ম্যাচ নিয়েই পরিকল্পনা সাজিয়েছি। আমাদের লক্ষ্য জয়। আবারও জয়ের ধারায় ফিরতে চাই। একটি জয় দলের আত্মবিশ্বাস অনেকখানি বাড়িয়ে দেয়। ইনজুরির কারণে দলে নেই সেরা তারকা লিওনেল মেসি। এ কারণে বার্সিলোনাকে এগিয়ে নেয়ার দায়িত্ব নেইমার ও সুয়ারেজের ওপর বেশি বর্তেছে। কিন্তু মেসি না থাকলে, কি হয় সেটা ইতোমধ্যে বুঝতে পেরেছে কাতালানরা। এরপর আবার ভায়োকানোর বিপক্ষে ম্যাচের আগে দুঃসংবাদ শুনতে পারে বার্সা। ইনুজরির কারণে খেলা অনিশ্চিত সুয়ারেজের। ম্যাচ শুরুর আগে সুয়ারেজকে নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে বার্সিলোনা। উরুগুইয়ান তারকাকে খেলানোর জন্য মেডিক্যাল টিম সর্বাত্মক চেষ্টা চালাচ্ছে জানিয়ে এনরিকে বলেন, খুব বড় ইনজুরি নয় সুয়ারেজের। তবে ম্যাচে খেললেও বড় ধরনের সমস্যা হতে পারে তার। ম্যাচে তাকে খেলানোর জন্য সর্বাত্মক চেষ্টা করছে দলের মেডিক্যাল টিম। সুয়ারেজ না খেললে নেইমারের সঙ্গে আক্রমণভাগ সামলাবেন দুই তরুণ সান্ড্রো ও মুনির-এল-হাত্তাদি।

বার্সিলোনার মতো জয়ের ধারায় ফিরতে চায় রিয়াল মাদ্রিদও। আগের ম্যাচে এগিয়ে থেকেও নগরপ্রতিদ্বন্দ্বী এ্যাটলেটিকোর সঙ্গে ড্র করে রোনাল্ডো, বেল, বেনজেমারা। তবে লেভান্তের বিপক্ষে নিজেদের সেরা রূপেই ফিরতে চায় রিয়াল। এমন লক্ষ্যই রিয়াল কোচ রাফায়েল বেনিতেজের। নিজ মাঠের সুবিধা নিয়ে লেভান্তেকে হারাতে চান তিনি। বলেন, প্রতিপক্ষকে নিয়ে আমাদের ভাবনাটা খুবই কম। আমরা নিজেদের নিয়েই আপাতত বেশি ভাবছি। এই ম্যাচে নিজেরা সেরাটা খেলতে পারলেই প্রতিপক্ষকে সহজেই ধরাশায়ী করতে পারব। ম্যাচটি নিজ মাঠে হওয়ায় আমরাই বেশি সুবিধা পাব। জয়ের ধারায় আবারও ফিরতে চাই। প্রতিপক্ষের বিপক্ষে আক্রমণাত্মক ফুটবলই খেলাই আমাদের লক্ষ্য।

কাঁধের ইনজুরির কারণে স্পেনের হয়ে ইউরো বাছাইপর্বের শেষ দুই ম্যাচে দলের বাইরে থাকা ডিফেন্ডার সার্জিও রামোস আজ রিয়ালের হয়ে মাঠে ফিরতে পারে। ক্লাবের হয়ে অনুশীলনে ফিরেছেন ২৯ বছর বয়সী এই সেন্টারব্যাক। এ্যাটলেটিবেকা মাদ্রিদের বিপক্ষে ডার্বি ম্যাচ দিয়ে দলে ফেরেন রামোস। তবে ফিটনেস সমস্যার কারণে ইউরো বাছাইয়ে জাতীয় দলের স্কোয়াড থেকে তার নাম প্রত্যাহার করা হয়। এ কারণেই তাকে ঘিরে রিয়াল শিবিরে উদ্বেগ কাজ করছে।