২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঠাকুরগাঁওয়ে কাল থেকে ৪৩২টি মন্ডপে দূর্গোৎসবের আয়োজন

ঠাকুরগাঁওয়ে কাল থেকে ৪৩২টি মন্ডপে দূর্গোৎসবের আয়োজন

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঠাকুরগাঁও॥ অশুভ শক্তিকে বিনাশকারি দূর্গা-দেবীকে বরণ করে নিতে ঠাকুরগাঁওয়ের ৪৩২টি মন্ডপে এখন চলছে শেষ প্রস্তুতি। ইতোমধ্যে জেলার ৪৩২টি মন্ডপে প্রতিমা তৈরীর কাজ শেষ হয়েছে। এখন চলছে প্রতিমায় রং করার কাজ। ষষ্ঠি পূজার পুর্বে সবকটি মন্ডপ হস্তান্তর করতে চলছে মালাকারদের ব্যস্ততা। তবে প্রতিমা তৈরীর মালামালের মূল্য বৃদ্ধি ও পারিশ্রমিক কম হওয়ায় সরকারের কাছে বিশেষ বরাদ্দ দাবি মালাকারদের। অশুড়ের আগমনে পৃথিবী যখন অস্থির হয়ে উঠে, মানুষে মানুষে চলে হানাহানি ওই সময় দূর্গা দেবীর আগমন ঘটে দূর্গতিনাশিনি হিসেবে। তাই ঠাকুরগাঁওয়ের সনাতন হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন প্রতি বছরের ন্যায় এবছরও ৪৩২টি মন্ডপে পূজার আয়োজন করেছেন। আর ক'দিন পরই দেবীর বোধনের মধ্য দিয়ে শুরু হবে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয়া দুর্গাপূজা। পূজার দিন যত ঘনিয়ে আসছে ততোই ব্যস্ততা বাড়ছে মন্ডপে মন্ডপে প্রতিমা তৈরির কারিগরের পাশাপাশি নানান রংগের তোরণ নিমার্ণ, পোস্টার লাগানো ও নিমন্ত্রণ কার্ড বিতরণে দায়িত্বপ্রাপ্ত সকলের। প্রতিমা তৈরির প্রাথমিক কাজ শেষে এখন চলছে প্রতিমা রং করার করার কাজ। সেজন্য মালকাররা নাওয়া খাওয়া ভুলে রাতদিন কাজ করে চলেছেন। একজন মালাকার একাধিক মন্ডবেব প্রতিমা তৈরির দায়িত্বে থাকায় তারা দলবল নিয়ে এখন মহাব্যস্ত। কারণ নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই

কাজ শেষ করে প্রতিমা বুঝিয়ে দিতে হবে। তাই শেষ মুহূর্তের তুলির আঁচড়ের টানে ব্যস্ত সময় পার করছেন তারা। এবার ওরিয়েন্টাল কালারের প্রতিমার চাহিদা সবচেয়ে বেশি। কিন্তু প্রতিমা তৈরীর মালামালের মূল্য বৃদ্ধি ও পারিশ্রমিক কম হওয়ায় বিশেষ বরাদ্দ দাবি মালাকারদের। অপরদিকে মন্ডপ কমিটির লোকজন আড়ম্বরপূর্ণ পরিবেশে দূর্গা দেবীকে বরণ করে নিতে ব্যস্ত সময় পার করছেন। জেলা পূজা উদযাপন কমিটি প্রশাসনের সঙ্গে মিটিং সভা ও বিভিন্ন মন্ডপ পরিদর্শন করে চলেছেন। পরিবারের অবালবৃদ্ধবনিতার মাঝেও চলছে কেনাকাটা আর আনন্দ উল্লাসের প্রস্তুতি। পূজা উপলক্ষে জেলার সর্বত্র এখন চলছে সাজ সাজ রব। এছাড়া শহরের হলপাড়া মন্ডপের ১১৩তম, কালীবাড়ি মন্ডপে ৫০বছর ও ঘোষপাড়া মন্ডপে ২৫ তম পূজা আয়োজন উপলক্ষে নানান কর্মসূচির আয়োজন চলছে। এরমধ্যে কালীবাড়ি মন্ডপে র‌্যালী, আলোচনাচনাসভা ও মনোঙ্গ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হবে। জেলা পূজা উদযাপন কমিটির সাধারণ সম্পাদক তপন কুমার ঘোষ জানান, এ বছর ঠাকুরগাঁও জেলায় ৪৩২টি মন্ডপে দূর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হবে। চধমব ২ ড়ভ ২ আড়ম্বরপূর্ন পরিবেশে দূর্গাপূজা উদযাপন করার আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি। এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার ফারহাত আহমেদ জানান, উৎসবমুখর পরিবেশে দুর্গা পূজা উদযাপনের জন্য প্রতিটি মন্ডপে পুলিম, আনসার সহ নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। তিনি সনাতন হিন্দুদের দূর্গাপূজা আনন্দঘন পরিবেশে উৎযাপনের আশাবাদ প্রকাশ করেন। মহা-ষষ্ঠীর মধ্য দিয়ে শুরু হবে শারদীয়া দুর্গাপূজা। এবার মা দুর্গা আসবেন ঘোড়ায় চড়ে, আর পূজা শেষে ফিরে যাবেন দোলায় করে।