১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শেখ রাসেলের জন্মদিন আজ

শেখ রাসেলের জন্মদিন আজ

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ আজ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শহীদ শেখ রাসেলের ৫১তম জন্মদিন। ১৯৬৪ সালের এই দিনে ধানম-ির বঙ্গবন্ধু ভবনে শেখ রাসেল জন্মগ্রহণ করেন। ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণীর দুরন্তপ্রাণ এই শিশু তার পিতার রাজনৈতিক জীবনকে দেখতে শুরু করেছিল মাত্র। বাবার বুকের গভীরে মুখ রেখে সাহস আর বীরত্বের উষ্ণতা নেয়ার যখনই ছিল শ্রেষ্ঠ সময়, ঠিক তখনই নরঘাতকের দল তাকে নির্মমভাবে হত্যা করে।

দশ বছরের শিশু রাসেল প্রতিদিনের মতো সেদিনও ঘুমিয়েছিল। আকস্মিক গুলির বীভৎসতায় তার ঘুম ভেঙ্গে যায়। ঘুম ভাঙ্গা চোখ নিয়ে সে আতঙ্কিত হয়, চমকে ওঠে। অবস্থা বুঝে বেগম মুজিব তাঁর আদরের দুলাল রাসেলকে রক্ষায় কাজের লোকসহ পেছনের দরজা দিয়ে চলে যেতে বলেন। গেট দিয়ে বাইরে যাওয়ার সময় ঘাতকরা তাকে আটক করে।

এ সময় বাড়ির ভেতরে মুহুর্মুহু বুলেটের শব্দ আর বীভৎস আর্তচিৎকার শুনে অবুঝ শিশু রাসেল কান্নাজড়িত কণ্ঠে ঘাতকদের বলেছিল- ‘আমি মায়ের কাছে যাব।’ কিন্তু এতটুকু মন গলেনি পরাজিত স্বাধীনতাবিরোধী ঘৃণ্য নরপিশাচদের। আগেই বঙ্গবন্ধুসহ পরিবারের সদস্যদের পৈশাচিক কায়দায় হত্যা করেছে। মায়ের কাছে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে ঠা-ামাথায় একটি সুন্দর ও অবুঝ শিশু শেখ রাসেলকেও গুলি করে হত্যা করে।

বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনীরা শিশু শেখ রাসেলকে হত্যা করে বঙ্গবন্ধুর রক্তের সব উত্তরাধিকার নিশ্চিহ্ন করতে চেয়েছিল। ইতিহাস সাক্ষ্য দেয়- তাদের অপচেষ্টা শতভাগ ব্যর্থতায় পর্যবসিত হয়েছে। শহীদ শেখ রাসেল আজ বাংলাদেশের শিশু-কিশোর, তরুণ, শুভবুদ্ধি বোধসম্পন্ন মানুষের কাছে ভালবাসার নাম। অবহেলিত, পশ্চাৎপদ, অধিকারবঞ্চিত শিশুদের আলোকিত জীবন গড়ার প্রতীক হয়ে গ্রাম-গঞ্জ-শহর তথা বাংলাদেশের বিস্তীর্ণ জনপদ-লোকালয়ে শেখ রাসেল আজ এক মানবিক সত্তায় পরিণত হয়েছে। মানবিক চেতনাসম্পন্ন মানুষ শেখ রাসেলের বিয়োগ দুঃখ-বেদনাকে হƒদয়ে ধারণ করে বাংলার প্রতিটি শিশু-কিশোর তরুণের মুখে হাসি ফুটাতে আজ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। দেশবাসীর আজ একটাই দাবি- বঙ্গবন্ধু ও শিশু রাসেল হত্যাকারীদের যেসব ঘাতক এখনও বিদেশের মাটিতে পালিয়ে আছে, তাদের দেশে এনে ফাঁসির রায় কার্যকর করতে হবে।

শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে আওয়ামী লীগ ও তার সকল সহযোগী সংগঠন, বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক-শিশু সংগঠনগুলো বিস্তারিত কর্মসূচী হাতে নিয়েছে। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে- সকাল সাড়ে ৮টায় বনানী কবরস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত শহীদ শেখ রাসেলসহ ১৫ আগস্টের সকল শহীদদের কবরে পুষ্পস্তবক অর্পণ, ফাতেহা পাঠ, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল।

এছাড়া ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ আজ বিকেলে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দিনব্যাপী কোরানখানি এবং বাদ আছর দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেছে। বাংলাদেশ শিশু একাডেমি শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে আনন্দ শোভাযাত্রা, পুরস্কার বিতরণ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ কেক কাটা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফরোজ চুমকি। শেখ রাসেল শিশু সংসদ মিলাদ ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করেছে।

শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদের কর্মসূচীর মধ্যে রয়েছে- সকাল ৭টায় কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংগঠনের পতাকা উত্তোলন, সকাল সাড়ে ৭টায় ধানম-ি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ, বিকেল ৪টায় বনানীতে শেখ রাসেলের কবর জিয়ারত ও দোয়া মাহফিল। এছাড়া সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে রয়েছে এসএসসি উত্তীর্ণ কৃতী ছাত্রছাত্রী, চিত্রাঙ্কন ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় ‘ক গ্রুপ’ বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ ও আলোচনা সভা। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা। সভাপতিত্ব করবেন শেখ রাসেল শিশু-কিশোর পরিষদের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মোঃ রকিবুর রহমান।