২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মগবাজারে পুলিশের হাত থেকে পালাতে গিয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর মগবাজারের নয়াটোলায় শামসুল হক (৬০) নামে এক ব্যক্তির রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। শনিবার রাত আটটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। শামসুল হক নয়াটোলার ১৪৮নং বাসার আব্দুল মান্নানের ছেলে। এ বিষয়ে রমনা থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মশিউর রহমান জনকণ্ঠকে জানান, ওনার ডায়াবেটিসসহ বিভিন্ন রোগ ছিল। তিনি কার কাছে যেন শুনেছেন পুলিশ এসেছে। বাড়ির চিপায় একটি বারান্দায় পালাতে গিয়ে তিনি পড়ে যান এবং আহত হন। প্রায় ঘণ্টাখানেক তিনি সেখানেই পড়ে ছিলেন। পরিবারের লোকজন খুঁজে পেয়ে আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে তার মৃত্যু হলে আমরা ময়নাতদন্তের জন্য লাশ পাঠিয়েছি।

শামসুল হকের ছোট ভাই সালাম আহমেদ গণমাধ্যমকে জানান, গত বছর (২০১৪ সাল) থেকে রাজারবাগ সদর দফতরের ডিসি ইমাম হোসেন ও তার ভাইদের সঙ্গে শামসুল হকের একটি জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। হয়রানি করার জন্য ২০১৪ সালের এপ্রিলের ২ তারিখে আদালতে একটি চুরির মামলা করে ডিসির ভাই মোর্শেদ ও শহিদুল। এছাড়াও বিভিন্নভাবে হয়রানি করে ডিসি ও তার ভাইরা। এর জের ধরে শনিবার রাত আটটার দিকে কিছু পোশাক পরা ও সাদা পোশাকের পুলিশ সদস্য আমাদের বাসায় আসে। পুলিশ আসার সংবাদে আমরা পরিবারের সবাই আগেই যে যার মতো পালিয়ে যাই। পরে পুলিশ চলে গেলে আমরা সবাই আবার বাসায় ফিরে আসি। কিন্তু আমার ভাই শামসুল হক আর ফিরে আসেনি।

তিনি আরও জানান, পরে তাকে খুঁজতে বের হলে পাশের গলিতে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখি। আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যাই। রাত সাড়ে ১১টার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ বিষয়ে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জানান, হ্যাঁ জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। কিন্তু সেটি উভয় পক্ষের মধ্যে মিটমাট হয়েছে।