২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পূর্ব জেরুজালেম ও পশ্চিম তীরে গুলিতে চার ফিলিস্তিনী নিহত

  • এ মাসে সহিংসতায় সাত ইসরাইলীসহ নিহত ৪৮

ফিলিস্তিনের পূর্ব জেরুজালেম ও পশ্চিম তীরে শনিবার পৃথক ঘটনায় চার ফিলিস্তিনী গুলিতে নিহত ও আরও একজন গুরুতর আহত হয়েছে। এসব ফিলিস্তিনী ছুরি নিয়ে ইহুদীদের ওপর হামলা করেছিল বলে বলা হয়েছে। খবর এএফপির।

চলতি মাসে প্রায় প্রতিদিনই ইসরাইলীদের ওপর ফিলিস্তিনীদের ছুরি হামলার পাশাপাশি সহিংসতা জোরদারের মধ্যে এ ঘটনা ঘটেছে। ছুরিকাঘাত এবং কিছু ক্ষেত্রে বন্দুক হামলায় এখন পর্যন্ত সাত ইসরাইলী নিহত এবং বেশ কয়েকজন আহত হয়। এছাড়া চলমান সহিংসতায় কমপক্ষে ৪১ ফিলিস্তিনী নিহত হয়েছে। এর মধ্যে বেশ কয়েক ইসরাইলীর ওপর হামলাকারী ফিলিস্তিনীও রয়েছে। পশ্চিম তীরের হেবরন নগরীতে একজন সশস্ত্র ইসরাইলী নাগরিক এক ফিলিস্তিনী তরুণকে গুলি করে হত্যা করেছে।

এ অঞ্চলে ইহুদী বসতি স্থাপনকারী ও ফিলিস্তিনী বাসিন্দাদের মধ্যে সবসময় চরম উত্তেজনা বিরাজ করে। পশ্চিম তীরের ঘটনা নিয়ে পরস্পরবিরোধী বক্তব্য পাওয়া গেছে। ইসরাইলের ওই বেসামরিক নাগরিকরা বলেছেন, তিনি ছুরি হামলার শিকার হন। তবে কয়েক ফিলিস্তিনী জানান, নিহত ব্যক্তি ছিল নিরস্ত্র। এ ঘটনার কিছুক্ষণ পর এক ইসরাইলী নারীপুলিশ গুলি করে এক ফিলিস্তিনী কিশোরীকে হত্যা করে। ইসরাইলী নারী পুলিশের ভাষ্য, ওই কিশোরী তাকে ছুরিকাঘাত করার পর তিনি গুলি চালান। এর কয়েক ঘণ্টার পর আরেক ফিলিস্তিনী এক ইসরাইল সৈন্যকে ছুরিকাঘাতের চেষ্টা করে। এরপর ওই ফিলিস্তিনী গুলিবিদ্ধ হয়।

জেরুজালেমে এক ফিলিস্তিনী কিশোর ছুরি নিয়ে এক সীমান্ত পুলিশের ওপর হামলা চালায়। ওই ফিলিস্তিনী কিশোর তার পরিচয়পত্র পরীক্ষা করার সময় এ হামলা চালায়। এরপর সে পুলিশের গুলিতে নিহত হয়। এদিকে সন্ধ্যায় জেরুজালেম ও পশ্চিম তীরের মধ্যে কালান্দিয়া চেকপয়েন্টে এক ফিলিস্তিনী এক ইসরাইলী পুলিশকে ছুরিকাঘাতের চেষ্টা করে। এ সময় ওই পুলিশ কর্মকর্তা গুলি করে হামলাকারীকে হত্যা করে। পূর্ব জেরুজালেম ও পশ্চিম তীরে ফিলিস্তিনী বিক্ষোভকারী ও ইসরাইলী নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষও হয়েছে।

এই মাত্রা পাওয়া