২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইয়েমেনে ভুল লক্ষ্যে সৌদি জোটের বিমান হামলা ২০ সৈন্য নিহত

ইয়েমেনে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট ভুল করে সরকারপন্থী একটি দলের উপর বোমাবর্ষণ করলে অন্তত ২০ সেনা নিহত হয়েছে। দেশটির নিরাপত্তা কর্মকর্তারা এ কথা জানান। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এ ঘটনায় আরও অন্তত ২০ সেনা আহত হয়েছে। খবর বিবিসির।

শিয়া হুতি বিদ্রোহীদের দমনে প্রায় চার মাস আগে ইয়েমেনে বিমান হামলা শুরু করে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট। দক্ষিণ তাইজ ও লাহজ প্রদেশের মধ্যবর্তী স্থানে রবিবার এই হামলার ঘটনা ঘটে। সরকারপন্থী একজন নিরাপত্তা কর্মকর্তা বলেন, ‘তারা ভেবেছিল হুতি বিদ্রোহীরা এখনও সেখানে অবস্থান করছে। তাই তারা সেখানে বিমান হামলা চালায়।’ এ বছরের শুরুতে হুতি বিদ্রোহীরা ইয়েমেনের রাজধানী সানা দখল করে এবং প্রেসিডেন্ট আব্দরাব্বু মনসুর হাদিকে গৃহবন্দী করে। ফেব্রুয়ারি মাসে সানা থেকে পালিয়ে যান হাদি। মার্চ মাস থেকে হাদি সরকারপন্থী ও হুতি বিদ্রোহীদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। প্রায় চার মাস ধরে সৌদি জোট ইয়েমেন সরকারের পক্ষে সেখানে বিমান হামলা চালানো শুরু করে। হাদিপন্থী বাহিনী জুলাইয়ের মাঝামাঝিতে হুতি বিদ্রোহীদের হটিয়ে লাহজসহ দক্ষিণের আরও চারটি প্রদেশের নিয়ন্ত্রণ পুনরায় নিজেদের হাতে নেয়। কিন্তু তাইজের পাহাড়ি এলাকায় এখনও সংঘর্ষ চলছে। গত বছর থেকে ওই এলাকা হুতিদের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। রাজধানী সানা যাওয়ার প্রধান সড়ক তাইজের মধ্য দিয়ে গেছে। মরু প্রদেশ জাওয়াফে অন্য একটি বিমান হামলায় ১৩ হুতি যোদ্ধা নিহত হয়েছে। আর সানার পূর্বদিকের প্রদেশ মারিবে হুতিদের গোলার আঘাতে সরকারপন্থীদের তিন সেনা প্রাণ হারিয়েছে। জাতিসংঘ জানায়, মার্চে ইয়েমেনে সংঘর্ষ শুরু হওয়ার পর এখন পর্যন্ত প্রায় সাড়ে চার হাজার বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছে। এছাড়া বাস্তুহারা হয়েছে প্রায় ১৫ লাখ মানুষ।