২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর প্রত্যয় ব্যক্ত হয়েছে নাটকে ॥ চিত্তরঞ্জন দাস

স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর প্রত্যয় ব্যক্ত হয়েছে নাটকে ॥ চিত্তরঞ্জন দাস

শারদীয় দুর্গাপুজো উপলক্ষে রাজধানীর বাসাবোর বরদেশ্বরী কালিমাতা মন্দিরে আজ থেকে শুরু হচ্ছে চার দিনব্যাপী নাট্যোৎসব। আগামী ২২ অক্টোবর সমাপনী সন্ধ্যায় মঞ্চায়ন হবে চলচ্চিত্রশিল্পীদের সমন্বয়ে ভৈরবনাথ গঙ্গোপাধ্যায় রচিত নাটক ‘মা-মাটি ও মানুষ’। নাটকটির নব নাট্যরূপ ও নির্দেশনা দিয়েছেন মন্দিরের সভাপতি ও উৎসব আহ্বায়ক চিত্তরঞ্জন দাস। নাটকের একটি বিশেষ চরিত্রেও তিনি অভিনয় করবেন। কথা হয় তাঁর সঙ্গে।

আপনার নির্দেশিত ‘মা মাটি ও মানুষ’ নাটক সম্পর্কে বলুন-

চিত্তরঞ্জন : ওপার বাংলার ভৈরবনাথ গঙ্গোপাধ্যায়ের লেখা এ কাহিনীটি যাত্রাপালা হিসেবেই বিভিন্ন দল মঞ্চায়ন করছে দীর্ঘদিন। আমি এটাকে বর্তমানের প্রেক্ষাপটে নাটক আকারে উপস্থাপন করার চেষ্টা করেছি। গ্রামের শোষিত ও শোষকদের মধ্যের নানারকম ঘটনা নিয়ে আবর্তিত হয়েছে এ নাটকটি। মূলত স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর এক প্রত্যয় ব্যক্ত হয়েছে এতে।

শুনেছি চলচ্চিত্রাভিনেতাদের যুক্ত করেছেন এ নাটকে?

চিত্তরঞ্জন : হ্যাঁ, বিশেষ আকর্ষণ আনার জন্য এ নাটকে অভিনয় করছেন চিত্রনায়িকা সুজাতা, খল অভিনেতা মিজু আহমেদ ও শিবা শানু, কৌতুক অভিনেতা ববি ভাই, আজাদ সোলায়মানসহ আরও অনেকে। নায়ক চরিত্রে অভিনয় করছেন রূপালি পর্দার মেহেদি।

নাটকে আপনার চরিত্র সম্পর্কে বলুন-

চিত্তরঞ্জন : আমার চরিত্রের নাম শিব ঠাকুর। চরিত্রটি পজেটিভ। গ্রামের একজন সম্ভ্রান্ত ঘরের সন্তান হয়েও শিব সাধারণ মানুষদের সঙ্গে মিলেমিশে থাকতে পছন্দ করে।

আপনার অভিনয়ের প্রথম দিকের কথা বলুন-

চিত্তরঞ্জন : আমার বাবা যাত্রায় অভিনয় করতেন। সে সূত্রে প্রভাবিত হয়ে আমিও ছোটবেলা থেকে অভিনয়ের দিকে ঝুঁকে পড়েছিলাম। যদিও এ্যামেচার যাত্রাদলের সঙ্গে কাজ করেছি, কিন্তু সুনামও কুড়িয়েছি অনেক। পরবর্তিতে নাট্য ফউজ নামের একটি সংগঠনের হয়ে গ্রুপ থিয়েটারের সঙ্গে যুক্ত হয়েছিলাম।

চার দিনব্যাপী নাট্যোৎসব সম্পর্কে বলুন-

চিত্তরঞ্জন : এটাকে ঠিক উৎসব বলা যাবে না। কারণ এখানে নাটকের পাশাপাশি থাকছে নৃত্যনাট্য ও গানের আয়োজন। তবে সার্বিক দিক দিয়ে এবার নাটকের প্রাধান্য বেশি থাকছে। উৎসবের উদ্বোধনী সন্ধ্যায় আজ মঞ্চায়ন হবে অপূর্ব কুমার কু-ু রচিত ও নির্দেশিত ইউনিট উত্তরণ প্রযোজিত নাটক ‘উত্তরণ, আগামীকাল দ্বিতীয় সন্ধ্যায় পরিবেশিত হবে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত ও কবিরুল ইসলাম রতন নির্দেশিত নৃত্যালোকের নৃত্যনাট্য ‘চিত্রাঙ্গদা। তৃতীয় সন্ধ্যায় মঞ্চায়ন হবে আবদুলাহ আল মামুন রচিত ও নির্দেশিত সুদীপ চক্রবর্তী পুনর্নির্মিত থিয়েটার বেইলি রোডের নাটক ‘কোকিলারা’। এতে একক অভিনয় করবেন লিজেন্ড অভিনেত্রী ফেরদৌসী মজুমদার। এই উৎসবে তাঁর মতো একজন বিখ্যাত অভিনয়শিল্পীকে পেয়ে গর্বিত। তার তেজোদীপ্ত ব্যক্তিত্ব এবং মমতাময়ী অভিনয় দেখতে যে উপচেপড়া ভিড় হবে সে কথা ভেবেই আমি পঞ্চাশ ফিট প্রজেকশনের বিশেষ ব্যবস্থা রেখেছি। যাতে কেউ তার অভিনয় দেখা থেকে বঞ্চিত না হয়। সমাপনী সন্ধ্যায় মঞ্চায়ন হবে চলচ্চিত্রশিল্পীদের অংশগ্রহণে ভৈরব গঙ্গোপাধ্যায় রচিত আমার নির্দেশিত নাটক ‘মা-মাটি ও মানুষ’। -গৌতম পা-ে

নির্বাচিত সংবাদ