১৬ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সাংহাই ওপেনে চ্যাম্পিয়ন জোকোভিচ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সাংহাই ওপেনেও শিরোপা জিতলেন নোভাক জোকোভিচ। রবিবার টুর্নামেন্টের ফাইনালে সার্বিয়ান এই টেনিস তারকা জো উইলফ্রেইড সোঙ্গাকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অর্জন করলেন। সেই সঙ্গে চলতি মৌসুমের নবম শিরোপা নিজের শোকেসে তুললেন টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের নাম্বার ওয়ান তারকা। শিরোপা জয়ের লড়াইয়ে সার্বিয়ান তারকা জোকোভিচ ৬-২ এবং ৬-৪ গেমে হারান ফরাসী তারকা সোঙ্গাকে। গত সপ্তাহেই চায়না ওপেনের শিরোপা জিতেন জোকোভিচ। স্প্যানিশ টেনিস তারকা রাফায়েল নাদালকে পরাজিত করে টানা ষষ্ঠবারের মতো সেই টুর্নামেন্টের শিরোপা নিজের করে নেন তিনি। পারফর্মেন্সের সেই ধারাবাহিকতা সাংহাইয়েও ধরে রেখেছেন জোকোভিচ। সেমিফাইনালে ব্রিটিশ টেনিস তারকা এ্যান্ডি মারেকে পরাজিত করে ফাইনালের টিকেট কাটেন সাংহাইয়ে। আর তার প্রতিপক্ষ হিসেবে ছিলেন ফরাসী তারকা সোঙ্গা। যিনি অন্য সেমিফাইনালে স্পেনের রাফায়েল নাদালকে পরাজিত করে ফাইনালে উঠেন। কিন্তু ফাইনালের মঞ্চে জোকোভিচই হাসলেন শিরোপা জয়ের হাসি। চায়নার পর সাংহাই। ব্যাক টু ব্যাক শিরোপা জয়ের পর যেন উচ্ছ্বাসের জোয়ারে ভাসছেন জোকোভিচ। ম্যাচ শেষে নিজেও স্বীকার করেছেন তা। বলছেন এটাই তার ক্যারিয়ারের সেরা সময়। এ বিষয়ে টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ তারকা বলেন, ‘আমি মনে করি ক্যারিয়ারের সবচেয়ে সেরা টেনিস খেলছি গত দুই সপ্তাহে। আর তার বদলেই ব্যাক টু ব্যাক শিরোপা জিতলাম। সত্যি বলছি এটাই আমার এই মুহূর্তের অনুভূতি।’ আরেকটু পেছনের দিকে তাকালেই দেখা যায় যে চলতি মৌসুমটা যেন একেবারেই নিজের করে নিয়েছেন নোভাক জোকোভিচ। চলতি মৌসুমের চার গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্টের সবকটিরই ফাইনাল খেলেছেন তিনি। কিন্তু ফ্রেঞ্চ ওপেনের ট্রফিটাই হাতছাড়া হয়েছে তার। সুইজারল্যান্ডের স্টানিসøাস ওয়ারিঙ্কার কাছে ফ্রেঞ্চ ওপেনের ফাইনালে না হারলে ক্যালেন্ডার সøাম জয়ের অবিস্মরণীয় কীর্তিটাও গড়ে ফেলতেন তিনি। তারপরও আনন্দের সীমা নেই তার। ২০১১ সালেও তিন গ্র্যান্ডসøাম জিতেছিলেন জোকোভিচ। সেবার সব মিলিয়ে ১০ শিরোপা জয়ের স্বাদ পেয়েছেন এই সার্বিয়ান। চলতি মৌসুমে ইতোমধ্যেই তিন গ্র্যান্ডসøামসহ ৯ শিরোপা নিজের শোকেসে তুলে নিয়েছেন জোকোভিচ। বাকি শুধু ডব্লিউটিএ ফাইনালসের শিরোপাটা। আসলে সার্বিয়ান এই তারকার অসাধারণ পারফর্মেন্স এখন একটা প্রশ্নেরই জন্ম দিচ্ছেÑ কোথায় থামবেন জোকোভিচ? তবে এর উত্তরটা জোকোভিচ নিজেও জানেন না, ‘এটা খুবই ভাল একটা প্রশ্ন কিন্তু আমার কোন উত্তর নেই।’

বেয়ার্নের টানা ৯ জয়

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ টানা নয় জয়ে ইতিহাস গড়েছে বেয়ার্ন মিউনিখ। শনিবার জার্মান বুন্দেসলিগায় ওয়েডার ব্রেমেনকে ১-০ গোলে হারিয়ে এই কৃতিত্ব দেখিয়েছে বাভারিয়ানরা। আসরের বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের হয়ে জয়সূচক গোল করেন টমাস মুলার। বুন্দেসলিগার শুরু থেকে টানা নয় ম্যাচ জয়ের নজির এই প্রথম। রেকর্ডগড়া এই জয়ে পূর্ণ ২৭ পয়েন্ট নিয়ে এককভাবে শীর্ষে বেয়ার্ন। ম্যাচে একতরফা প্রাধান্য বিস্তার করে খেলেও ন্যূনতম ব্যবধানে জয় পেতে হয়েছে পেপ গার্ডিওলার দলকে। ২৩ মিনিটে থিয়াগো আলকান্টারার বাড়ানো বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে একমাত্র গোলটি করেন মুলার। বাকি সময়ে একাধিক সহজ গোলের সুযোগ আসলেও বেয়ার্ন তারকারা তা কাজে লাগাতে ব্যর্থ হন। ম্যাচ শেষে বেয়ার্ন কোচ পেপ গার্ডিওলা বলেন, এটা সহজ ম্যাচ ছিল না।

ডি’ককের সেঞ্চুরি

ভারত-দক্ষিণ আফ্রিকা তৃতীয় ওয়ানডে

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ কুইন্টন ডি’ককের সেঞ্চুরির উপর ভর করে তৃতীয় ওয়ানডেতে ভারতকে ২৭১ রানের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দেয় সফরকারী দক্ষিণ আফ্রিকা। রাজকোটে টস জিতে ব্যাটিং বেছে নেন প্রোটিয়া অধিনায়ক এবি ডি ভিলিয়ার্স। ১৩.৩ ওভারে ওপেনিং জুটি থেকে আসে ৭২ রান। ৩৩ রান করে আউট হন ডেভিড মিলার। দলীয় ৮৭ রানের মাথায় হাশিম আমলাকে হারায় অতিথিরা। মাত্র ৫ রান করে সাজঘরে ফেরেন সময়ের অন্যতমসেরা এই ব্যাটসম্যান। এরপরই গড়ে ওঠে সেরা জুটি। তৃতীয় উইকেটে ২০ ওভারে ১১৮ রান যোগ করেন ডি’কক-ফাফ ডুপ্লেসিস।

চট্টগ্রামে ইস্ট বেঙ্গল ও কলকাতা মোহামেডান

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ শেষ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ টুর্নামেন্টে অংশ নিতে চট্টগ্রামে আসতে শুরু করেছে বিদেশী টিমগুলো। রবিবার এসে পৌঁছেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের ঐতিহ্যবাহী ফুটবল ক্লাব ‘কিংফিশার ইস্ট বেঙ্গল এবং কলকাতা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব।’ আগামী ২০ অক্টোবর চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে শুরু হতে যাচ্ছে এই ফুটবল টুর্নামেন্ট। এতে অংশগ্রহণ করবে দেশী-বিদেশী ৮ দল।

রবিবার দুপুরে চট্টগ্রামে এসে পৌঁছেছে কলকাতার কিংফিশার ইস্ট বেঙ্গল ক্লাবের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাগণ। তারা অবস্থান করছেন হোটেল পেনিনসুলায়। চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কলকাতার এ টিমকে স্বাগত জানান আয়োজকরা।

টুর্নামেন্টে ৮ দল অংশ নেবে দু’গ্রুপে বিভক্ত হয়ে। লীগ পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হবে টুর্নামেন্ট আয়োজক। বাংলাদেশে কোন ক্লাবের ব্যবস্থাপনায় এটিই প্রথম আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ টুর্নামেন্ট, যা অনুকরণীয় হয়ে থাকবে বলে আশা করছেন আয়োজকরা।

আয়োজক কমিটি জানায়, টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী টিমগুলো হচ্ছেÑ গ্রুপ ‘এ’ ঢাকা মোহামেডান, কলকাতা মোহামেডান, শ্রীলঙ্কার সলিড এফসি। এই গ্রুপের অন্য একটি দল এখনও চূড়ান্ত হয়নি। আফগানিস্তানের শাহীন আসমাই ফুটবল ক্লাব ও আফগান প্রিমিয়ার লীগ চ্যাম্পিয়ন ডি স্পিন গরবাজান ফুটবল ক্লাবের মধ্য থেকে যে কোন একটি ক্লাব এতে অংশ নেবে। আর গ্রুপ ‘বি’-তে রয়েছে ঢাকা আবাহনী লিমিটেড, কলকাতা ইস্ট বেঙ্গল, পাকিস্তানের করাচী ইলেকট্রিক ক্লাব ও স্বাগতিক চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেড। চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে গ্রুপ পর্বে ম্যাচ শুরু হবে বিকেল সাড়ে ৪টায় এবং সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায়।

শেখ কামাল ক্লাব কাপ টুর্নামেন্টকে সামনে রেখে ব্যাপক প্রচার চলছে চট্টগ্রামে। পত্রপত্রিকা এবং অসংখ্য ব্যানার ফেস্টুন দেখা যাচ্ছে নগরীতে। এছাড়া নগরীর টাইগারপাস, কাস্টমস, জিইসি মোড়সহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্পটে পথ ফুটবলের আয়োজন করা হয়েছে আন্তর্জাতিক এ টুর্নামেন্টকে ঘিরে। মূলত একটি সাজ সাজ রব তোলার চেষ্টা প্রয়াসী হয়েছেন আয়োজকরা।

স্কুল রাগবি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ফিজি ফ্রেন্ডশিপ কাপ স্কুল রাগবির পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান সম্পন্ন। এবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মোহাম্মদ আলী ইয়াকুব আলী স্কুল এ্যান্ড কলেজ। মঙ্গলবার পল্টন ময়দান মাঠে অনুষ্ঠিত ফাইনালে তারা ৩৬-০৯ পয়েন্টে সেন্ট গ্রেগরি হাইস্কুলকে পরাজিত করে। এর আগে তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে আগারগাঁও তালতলা সরকারী কলোনি উচ্চ বিদ্যালয় ও মহিলা কলেজ ২৯-০০ পয়েন্টে ক্যামব্রিয়ান স্কুল এ্যান্ড কলেজকে হারিয়ে তৃতীয় হয়। প্রতিযোগিতার সেরা খেলোয়াড় হয়েছেন চ্যাম্পিয়ন দলের মোঃ সাকিল। খেলা শেষে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন রাষ্ট্রীয় পুরস্কার প্রাপ্ত কাবাডি খেলোয়াড় ও প্রশিক্ষক মোঃ আব্দুল জলিল।