২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তৃতীয় প্রান্তিকে জিপির আয় ৭ হাজার ৭৯০ কোটি টাকা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ চলতি বছরের প্রথম নয় মাসে ৭ হাজার ৭৯০ কোটি টাকা রাজস্ব আয় করেছে মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন। যা আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ১ দশমিক ৬ শতাংশ বেশি। এর মধ্যে সেবা থেকে রাজস্ব বেড়েছে ১ দশমিক ৪ শতাংশ; আর ডিভাইস ও অন্যান্য খাতে বেড়েছে ৫ শতাংশ। এ ছাড়া এই নয় মাসে গ্রামীণফোনে যুক্ত হয়েছে ৪০ লাখ নতুন গ্রাহক। ফলে প্রান্তিক শেষে মোট গ্রাহকসংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৫ কোটি ৫৫ লাখ।

সোমবার বিকেলে রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই-সেপ্টেম্বর) আর্থিক বিবরণী প্রকাশ উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়। সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরে সংবাদ সম্মেলনে গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) রাজীব শেঠি বলেন, চলতি বছরের শুরুর দিকে রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে ব্যবসায়ের ক্ষেত্রে কিছুটা প্রতিকূল পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়। কিন্তু তৃতীয় প্রান্তিকে আমরা তা সাফল্যের সঙ্গে কাটিয়ে উঠতে পেরেছি। ইন্টারনেট সেবার গ্রাহক বৃদ্ধির তথ্য উল্লেখ করে তিনি বলেন, গ্রামীণফোনের ৫২ লাখ গ্রাহক ইন্টারনেট সেবার আওতায় এসেছে। এর মধ্যে কমপক্ষে ১২ লাখ গ্রাহক থ্রিজি সুবিধা ব্যবহার করছেন। ২০১৭ সালের মধ্যে নিজেদের ইন্টারনেট গ্রাহক সংখ্যা দেড় কোটিতে উন্নীত করার লক্ষ্যে অবকাঠামো ক্ষেত্রে বিনিয়োগ অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, সবার জন্য ইন্টারনেট ব্যবহারের সুযোগ করে দিতে গ্রামীণফোন ইতোমধ্যে দেশের দুই-তৃতীয়াংশ গ্রাহক এলাকাকে থ্রিজি নেটওয়ার্কের আওতায় নিয়ে এসেছে। এ ছাড়া আগামী ১৬ ডিসেম্বর থেকে নতুন গ্রাহকদের জন্য সহজ সিম নিবন্ধন প্রক্রিয়াও চালু করবে গ্রামীণফোন।

আয়কর প্রদানের হিসাব তুলে ধরে সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, প্রতিষ্ঠানটি ভ্যাট, শুল্ক এবং লাইসেন্স ফি হিসেবে সরকারী কোষাগারে তিন হাজার ৮৮০ টাকা প্রদান করেছে। প্রথম নয় মাসে গ্রামীণফোনের নিট মুনাফা হয়েছে ১৮ দশমিক ৮ শতাংশ, যা মার্জিনসহ এক হাজার ৪৬০ কোটি টাকা।