১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

অবশেষে মামলা করলেন বাউচার্ড

অবশেষে মামলা করলেন বাউচার্ড

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অবশেষে মামলায় জড়ালেন টেনিস তারকা ইউজেনি বাউচার্ড। মৌসুমের শেষ গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট ইউএস ওপেন চলাকালে লকার রুমে পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পেয়েছিলেন কানাডার তরুণ প্রতিভাবান খেলোয়াড়। এর পরপরই মিশ্র দ্বৈত এবং মহিলা একক থেকে নিজের নাম সরিয়ে নেন তিনি। কিন্তু তারপরও সেই ব্যথা মারাত্মকভাবে ভোগায় তাকে। ইউএস ওপেনের পর চায়না এবং জাপান ওপেনেও খেলতে পারেননি তিনি। শুধু তাই নয়, টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়েও অধপতন ঘটেছে তার। যে কারণেই প্রায় এক মাস পর ইউনাইটেড স্টেটস টেনিস এ্যাসোসিয়েশনের (ইউএসটিএ) বিরুদ্ধে মামলায় জড়ালেন। বাউচার্ডের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়, এক সময় র‌্যাঙ্কিংয়ের পঞ্চম স্থানে ছিলেন বাউচার্ড। কিন্তু লকার রুমে আঘাত পাওয়ার পর থেকেই তার অধপতন হচ্ছে। আর এটা হয়েছে মূলত ইউএসটিএ’র অসচেতনতা, অবহেলা, দায়িত্বজ্ঞানহীনতা এবং কর্তৃপক্ষের অমনোযোগী দৃষ্টিভঙ্গির কারণে। এ্যাসোসিয়েশন কর্তৃপক্ষ নিরাপদ এবং খেলোয়াড়দের উপযোগী অবস্থান রাখতে পুরোপুরিভাবেই ব্যর্থ হয়েছে।

একটু পেছনের দিকে তাকালেই দেখা যায়, গত বছর হঠাৎ করেই টেনিস বিশ্বের পাদপ্রদীপের আলোয় চলে আসেন ইউজেনি বাউচার্ড। প্রথম দুই গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্টের সেমিফাইনালে উঠেন তিনি। এরপর উইম্বলডনের ফাইনালে উঠে কানাডিয়ান এই তারকা রীতিমতো চমকে দেন টেনিস বিশ্বকেই। টেনিসের নতুন তারকা হিসেবে বিবেচনায় চলে আসেন ২১ বছর বয়সী এই খেলোয়াড়। কিন্তু দুর্ভাগ্য তার। গত মৌসুমের পারফর্মেন্সের সেই ধারাবাহিকতা খুব বেশিদিন ধরে রাখতে পারেননি। চলতি মৌসুমের প্রথম গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠলেও পরের সময়টাতে আর কোর্টে খোঁজে পাওয়া যায়নি তাকে। তবে বছরের শেষ গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট ইউএস ওপেনে নিজেকে মেলে ধরার সুযোগ পান তিনি। ফ্লাশিং মিডোতে টানা তিন জয়ের দেখা পান তরুণ প্রতিভাবান এই টেনিস তারকা। সেই সঙ্গে জায়গা করে নেন টুর্নামেন্টের শেষ ষোলোতে। কিন্তু এরপরই চোটের কবলে পড়েন তিনি। এর ফলে ইউএস ওপেনের মিশ্র দ্বৈত এবং একক থেকে নিজেকে সরিয়ে নেন বাউচার্ড। এরপর উহান, চায়না ওপেনে খেলার খুবই ইচ্ছে ছিল তার। সবধরনের প্রস্তুতিও নিয়ে নিয়েছিলেন তিনি। উহান ওপেনে খেলতে ব্যর্থ হওয়ার পর চায়না ওপেনে তো কোর্টেও নেমেছিলেন কানাডার সেরা এই প্রমীলা খেলোয়াড়। কিন্তু প্রথম পর্বের প্রথম গেমে আন্দ্রেয়া পেটকোভিচের কাছে ৬-২ গেমে হেরে যাত্রা শুরু করেন তিনি। কিন্তু দ্বিতীয় গেমে যখন ১-১ ব্যবধানে সমতায়। তখন আবারও নতুন করে ইনজুরির সম্মুখীন হন বাউচার্ড। এরপর রিটায়ার্ড অবসর নেন তিনি। এই মৌসুমে আর কোর্টে নামা হচ্ছে না তার। এটা খুবই সুস্পষ্ট। যে কারণে নতুন বছরের শুরুতেই কোর্টে নামতে মরিয়া বাউচার্ড। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ভেবেছিলাম শারীরিকভাবে আমি প্রস্তুত। কিন্তু দুর্ভাগ্য যে সেই লক্ষণ আবারও ফিরে এলো। আশা করছি দ্রুতই সুস্থ হয়ে যাব এবং আগামী বছরেই কোর্টে নামব।’ ২০১৪ সালেই পাদপ্রদীপের আলোয় উঠে আসেন ইউজেনি বাউচার্ড। শুধু কোর্টের পারফর্মেন্স নয় বরং কোর্টের বাইরেও এই তরুণী নজর কাড়েন তার রূপ ও গুণ দিয়ে। যাত্রা শুরু করেন মডেলিংয়েও।