২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইন্টার মিলান-জুভেন্টাস ম্যাচ ড্র

  • হেরেও শীর্ষে ফিওরেন্টিনা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইতালিয়ান সিরি এ লীগের পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে উঠার সুযোগ ছিল ইন্টার মিলানের। কিন্তু পারল না রবার্তো মানচিনির দল। কেননা ইতালিয়ান লীগে রবিবার ইন্টার মিলান আর জুভেন্টাসের হাইভোল্টেজ ম্যাচটি যে নিরুত্তাপ ড্রয়েই শেষ হলো। এদিন শক্তিশালী দুই দলের কেউই গোলের দেখা পায়নি। যে কারণে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই সন্তুষ্ট থাকতে হলো তাদের। এছাড়া দিনের অপর ম্যাচে ফিওরেন্টিনাকে ২-১ গোলে নেপোলি, সাসাওলো সমান ব্যবধানে হারায় ল্যায়িওকে এবং পালের্মো ১-০ গোলে হারায় বোলোগনাকে। ঘরের মাঠে ইন্টারের সামনে ছিল লীগ টেবিলের শীর্ষে উঠার হাতছানি। অবশ্য, পয়েন্ট খোয়ালেও তিন নম্বরেই রয়েছে রবার্তো মানচিনির শিষ্যরা। অন্যদিকে, লীগের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা এখনও শীর্ষ দশের বাইরে।

সান সিরো স্টেডিয়ামে রবিবার ম্যাচের শুরু থেকেই বল দখলের নিয়ন্ত্রণ নেয় ইন্টার। প্রথমার্ধ জুড়েই জুভিদের রক্ষণভাগ ব্যস্ত রাখে ইকার্দি-জোভেটিকরা। কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে খেই হারিয়ে ফেলে স্বাগতিকরা। অন্যদিকে, আক্রমণাত্মক ফুটবল উপহার দিলেও জালের ঠিকানা খুঁজে পাননি পগবা-মোরাতারা। তবে এই ম্যাচ গোলশূন্য ড্রয়ে শেষ হওয়ার পেছনে দু’দলের গোলরক্ষককেও কৃতিত্ব দিতে হবে। ইন্টারের স্যামির হ্যান্ডানোভিচ ও জুভিদের জিয়ানলুইজি বুফন দু’জনই বেশ কয়েকটি দর্শনীয় সেভ করেন।

নিজেদের মাঠ সানসিরো স্টেয়িামে জুভেন্টাসের বিপক্ষে সবসময়ই ফেবারিট ইন্টার। তাই এদিনও ভক্ত-অনুরাগীদের প্রত্যাশা ছিল জয় নিয়েই মাঠ ছাড়বেন তারা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা আর হয়নি। ২০১০ সালের পর এই প্রথম নিজেদের মাঠে জুভেন্টাসের বিপক্ষে জয় বঞ্চিত ইন্টার। তবে দলের কোচ ম্যাচটিকে কঠিন বলে মন্তব্য করেছেন। এ বিষয়ে ম্যাচ শেষের সংবাদ সম্মেলনে মানচিনি বলেন, ‘এটা কঠিন একটি ম্যাচ। দুই দলের জন্যই লড়াইটা বেশ কঠিন ছিল। তবে প্রথমার্ধে আমাদের গোল করার বেশকিছু সুযোগ এসেছিল কিন্তু দ্বিতীয়ার্ধে আর তা পারেননি খেলোয়াড়রা। তবে আমি বলব ড্রটাও আমাদের জন্য ভাল ফলাফল।’ ইন্টারে ইতালিয়ান কোচ মানচিনির এটা দ্বিতীয় অধ্যায়। ২০০৪-০৮ সাল পর্যন্ত প্রথমবার ইন্টারের দায়িত্ব পালনের পর ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার সিটিতে যোগ দেন তিনি। কিন্তু নিজেকে মেলে ধরতে ব্যর্থ হন মানচিনি। যে কারণে ম্যানসিটির পর গালাতাসারের ক্যারিয়ার শেষে আবারও সাবেক ক্লাবের দায়িত্ব নেন গত বছর। তবে তার অধীনে বেশ ভালই খেলছে ইন্টার। পয়েন্ট টেবিলে আট ম্যাচ শেষে পাঁচ জয়, দুই ড্র ও এক পরাজয়ে ইন্টারের সংগ্রহ ১৭ পয়েন্ট। অবস্থান তিনে। সমান ম্যাচে মাত্র নয় পয়েন্টে ১৪ নম্বরে অবস্থান করছে জুভেন্টাস। অথচ গত চার মৌসুম ধরেই সিরিয়া লীগে রাজত্ব করছে জুভেন্টাস। এবার শীর্ষ দশেও নেই তাদের স্থান। তারপরও আশা ছাড়ছেন না বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের কোচ ম্যাসিমিলিয়ানো এ্যালেগ্রি। এদিন নেপোলির বিপক্ষে হারলেও শীর্ষস্থান অক্ষুণœ রেখেছে ফিওরেন্টিনা। ১৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই রয়েছে তারা। ইন্টারের সমান পয়েন্টে গোল ব্যবধানে এগিয়ে থাকায় লীগ টেবিলের দুইয়ে অবস্থান করছে রোমা।