২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি ঢাকা আবাহনী-করাচী ইলেকট্রিক

স্পোর্টস রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে ॥ বাংলাদেশে বিভিন্ন ক্লাব নিয়ে ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে অগুণিত। তবে দেশী-বিদেশী ক্লাবের অংশগ্রহণে কখনও কোন আন্তর্জাতিক ফুটবল আসর হয়নি। মঙ্গলবার থেকে এই অপ্রাপ্তিও ঘুচে যাচ্ছে। চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট’-এর প্রথম আসর। এতে দুটি গ্রুপে অংশ নিচ্ছে দেশ-বিদেশের আট ক্লাব। ‘বি’ গ্রুপের দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে প্রথম দিন। বিকেল সাড়ে ৪টায় বাংলাদেশের ঢাকা আবাহনী লিমিটেড বনাম পাকিস্তানের করাচী ইলেকট্রিক ফুটবল ক্লাবের ম্যাচ দিয়েই পর্দা উঠতে যাচ্ছে জমজমাট এই ফুটবল যজ্ঞের। একইদিন একই ভেন্যুতে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় অপর ম্যাচে মুখোমুখি হবে স্বাগতিক বাংলাদেশের চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেড বনাম ভারতের কলকাতার কিংফিশার ইস্টবেঙ্গল ফুটবল ক্লাব। প্রধান অতিথি হিসেবে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করবেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) এবং সাফ ফুটবলের সভাপতি কাজী মোঃ সালাহউদ্দিন। বিশেষ অতিথি থাকবেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন।

টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দলগুলোর থাকা খাওয়া, আসা যাওয়ার খরচ দেবে আয়োজকরা। টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ২৫ হাজার ডলার। রানার্সআপ দল পাবে ১০ হাজার ডলার। অংশগ্রহণ ফি হিসেবে দেশী দল তিনটি পাবে পাঁচ লাখ টাকা করে। প্রতি ম্যাচে জয়ী দল পাবে এক হাজার ডলার। ম্যাচসেরা খেলোয়াড়েরও পুরস্কার থাকছে। এছাড়া স্টেডিয়ামে আগত দর্শকদের জন্য থাকছে মোটরসাইকেল পুরস্কার।

এ উপলক্ষে সোমবার চট্টগ্রামের একটি হোটেলে অংশগ্রহণকারী দলগুলোকে নিয়ে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা আবাহনীর কোচ অমলেশ সেন, অধিনায়ক প্রাণোতোষ কুমার দাস, ম্যানেজার সত্যজিত দাস রূপু; করাচী ইলেকট্রিকের কোচ মাজিদ শফিক, অধিনায়ক মোহাম্মদ ইসহাক; চট্টগ্রাম আবাহনীর কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক, অধিনায়ক জাহিদ হাসান এমিলি; বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা আহসান আহমেদ অমিত, অফিস এক্সিকিউটিভ শেখ ফয়সাল এবং আয়োজক চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেডের উর্ধতন কর্মকর্তারা। বাংলাদেশের অন্যতম দুটি ঐতিহ্যবাহী ও জনপ্রিয় ফুটবল ক্লাবের একটি হচ্ছে ঢাকা আবাহনী। ঈদ-উল-আযহার জন্য অবশ্য দলের ফুটবলারদের দিন ছয়েকের ছুটি দেয়া হয়েছিল। এই টুর্নামেন্টের নিয়ম অনুযায়ী প্রতিটি দল খেলাতে পারবে তিন বিদেশী ফুটবলারকে। আবাহনী সেই নিয়মটা কাজে লাগানোর চেষ্টা করবে ঘানার ডিফেন্ডার সামাদ ইউসুফ, নাইজিরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডে চিজোবা এবং নাইজিরিয়ান মিডফিল্ডার স্যামসন ইলিয়াসুকে নিয়ে। রূপু বলেন, ‘আমাদের প্রথম প্রতিপক্ষ পাকিস্তানের করাচী ইলেকট্রিক ভাল দল। এই ম্যাচটি আমাদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। শুরুটা জয় দিয়ে হলে এই আসরের শিরোপা জয়ের পথে একধাপ এগিয়ে যেতে পারব।’ কোচ অমলেশ বলেন, ‘আমরা এগোতে চাই ধাপে ধাপে। প্রাথমিক লক্ষ্য হচ্ছে গ্রুপে চ্যাম্পিয়ন হওয়া। তারপর সেমিফাইনাল এবং সবশেষে ফাইনালে জেতা।’ অধিনায়ক প্রাণোতোষের প্রতিক্রিয়া, ‘সমর্থকদের দোয়া সঙ্গে থাকলে অবশ্যই আমরা সফল হব।