২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আবেগঘন পুনর্মিলনের লক্ষে দ.কোরিয়ার নাগরিকদের উ.কোরিয়ায় প্রবেশ

অনলাইন ডেস্ক ॥ কোরীয় যুদ্ধের কারণে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়া আত্মীয়-স্বজনের সঙ্গে বিরল আবেগঘন সাক্ষাতের জন্য দক্ষিণ কোরিয়ার কয়েকশ’ নাগরিক মঙ্গলবার উত্তর কোরিয়ায় প্রবেশ করেছেন। এসব নাগরিকের বেশীর ভাগই বয়স্ক। তাদের মধ্যে অনেকেরই নিকটজনের সাথে কখনো দেখা সাক্ষাৎ হয়নি বা ছয় দশকেরও বেশী সময় আগে তাদের সর্বশেষ দেখা হয়েছিল।

সকালে রেডক্রসের পতাকাবাহী বাসের বহরে এসব নাগরিককে দক্ষিণ কোরিয়ার বন্দরনগরী সকচোর রিসোর্ট থেকে কঠোর নিরাপত্তাবেষ্টিত সীমান্ত দিয়ে উত্তর কোরিয়ায় নেয়া হয়।

১৯৫০-৫৩ সালের কোরীয় যুদ্ধের পর কোরিয়া দুইভাগে বিভক্ত হয়ে যায়। দক্ষিণ কোরিয়ার বয়স্ক অধিবাসীদের সীমান্ত অতিক্রম করার পর উত্তর কোরিয়ার মাউন্ট কুমগাং অবকাশ কেন্দ্রে নেয়া হচ্ছে। সেখানে বিকেলে তিনদিনব্যাপী পারিবারিক পুনর্মিলন শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।

উল্লেখ্য, বিগত পাঁচ বছরের মধ্যে কেবলমাত্র দ্বিতীয়বারের মতো এ পুনর্মিলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। দুই কোরিয়ার মধ্যে বিদ্যমান উত্তেজনা প্রশমনে গত আগস্ট মাসে এ দু’টি দেশ একটি চুক্তিতে পৌঁছানোর ফলে এ বিরল পুনর্মিলন হতে যাচ্ছে।

দেশ ভাগ হওয়ার ফলে বিপুল মানুষ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। ভাইয়ের সাথে ভাই, ভাই-বোন,মা বাবা, সন্তান, স্বামী-স্ত্রী বিভক্ত হয়ে যায়। ৬৫ হাজারেরও বেশী দক্ষিণ কোরীয় নাগরিকের নাম উত্তর কোরিয়ায় তাদের ঘনিষ্ঠ আতœীয় স্বজনের সাথে মিলিত হওয়ার জন্য তালিকাভুক্ত রয়েছে।