২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আনকোরা দলের কাছেই কুপোকাত বাংলাদেশ ‘এ’ দল

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ না দলটি পরিচিত। না দলটির ক্রিকেটাররা। দক্ষিণ আফ্রিকার এমন আনকোরা দলের কাছেই হারল বাংলাদেশ ‘এ’ দল। দক্ষিণ আফ্রিকার প্রিটোরিয়ায় আইরিন ভিলেজার্সের কাছে একদিনের প্রস্তুতি ম্যাচে ৪ উইকেটের হার হলো শুভগত হোমের দলের। ব্যাটিংয়ে ৬৮ রান নিয়ে রনি তালুকদার ও বোলিংয়ে একাই ৫ উইকেট নিয়ে পেসার আল আমিন হোসেন ছাড়া আর কেউই ঝলক দেখাতে পারলেন না। নিয়তি তাই হারই হলো। বাংলাদেশ ‘এ’ দল ২৭২ রান করল, ৬ উইকেট হারিয়ে আইরিন ভিলেজার্স ২৭৩ রান করে জয় তুলে নিল।

জিম্বাবুইয়ে গিয়ে জিম্বাবুইয়ে ‘এ’ দলের বিপক্ষে তিন ম্যাচের একদিনের ও দুই ম্যাচের চারদিনের সিরিজ খেলার আগে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে যায় বাংলাদেশ ‘এ’ দল। ক্রিকেটাররা জিম্বাবুইয়ে যাওয়ার আগে প্রস্তুতি যেন ভালভাবে সেরে নিতে পারে, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) এ সুযোগটি তৈরি করে দেয়। কিন্তু শুভগত, সৌম্য সরকার, রনি, লিটন কুমার দাস, সাব্বির রহমানরা হতাশই করলেন। ভারত ‘এ’ দলের বিপক্ষে যেমন হতাশ করেছেন, এবার আফ্রিকা মিশনের শুরুতেই ধাক্কা খেলেন তারা। আজ একই দলের বিপক্ষে তিনদিনের প্রস্তুতি ম্যাচ শুরু হবে। দেখা যাক সেটিতে কী করেন শুভগতরা।

এ তিনদিনের ম্যাচের আগে অবশ্য দলকে নিয়ে সংশয় প্রকাশ করার অনেক জায়গাই তৈরি হয়েছে। টস জিতে স্বাগতিক দলটি। বাংলাদেশ ‘এ’ দলকে আগে ব্যাট করতে পাঠায়। সুযোগটি কাজে লাগানোর চেষ্টাও করে শুভগত হোমের দল। ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৭২ রান করে। স্কোরবোর্ডে রান ভালই জমা হয়। কিন্তু টপঅর্ডার ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতা ভালভাবেই নজরে পড়ে। যদি টপঅর্ডাররা ভাল ব্যাটিং করত, তাহলে ম্যাচটি বাংলাদেশই জিতত।

ওপেনার রনি তালুকদার ৬৮ ও লিটন কুমার ৩৯ রান করেন। টপঅর্ডারের ৫ ব্যাটসম্যানের মধ্যে সৌম্য সরকার (৮), সাব্বির (০) ও শুভগত (৯) ব্যর্থ হলে দল খাদের কিনারায় শুরুতেই পড়ে যায়। ১৩৬ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বসে। সেখান থেকে মোঃ মিঠুন ৩৩, অপরাজিত থাকা মাহমুদুল হাসান ৪৩ ও সাদমান ইসলাম ৩৮ রান করে দলকে এতদূর নিয়ে যান।

বাংলাদেশ ‘এ’ দল ম্যাচটি জিততে পারত। শুরুতে আল আমিন এমন ভয় ধরিয়ে দেন, একাই ৪ উইকেট তুলে নেন। ২৭ রানেই সফরকারীরা ৪ উইকেট হারায়। আল আমিনই ধস নামান। কিন্তু এরপর এমনভাবে ঘুরে দাঁড়ায় আইরিন ভিলেজার্স, ৯ বোলার কাজে লাগিয়েও কিছুই করতে পারেনি বাংলাদেশ ‘এ’ দল। পঞ্চম উইকেটেই সব শেষ হয়ে যায়। নাইডু (৬৫) ও মুনসামি (৮৪) মিলেই ১৩৮ রানের জুটি গড়ে ফেলেন। সফরকারীরাও ১৬৫ রানে চলে যায়। এরপর মুনসামিকে রুখেন তাইজুল। কিন্তু কাবের (৪৪*) ও স্নিমেন (৪০*) মিলেই খেলা শেষ করে দেন। তাদের আর রোখা যায়নি। ৬ উইকেটে ৪৮.৩ ওভারে ২৭৩ রান করে জিতে যায় আইরিন ভিলেজার্স।

স্কোর ॥

বাংলাদেশ ‘এ’ ইনিংস ২৭২/৭; ৫০ ওভার (রনি ৬৮, মাহমুদুল ৪৩*, লিটন ৩৯, সাদমান ৩৮*, মিঠুন ৩৩; প্রিটোরিয়াস ২/৩৫)।

আইরিন ভিলেজার্স ইনিংস ২৭৩/৬; ৪৮.৩ ওভার (মুনসামি ৮৪, নাইডু ৬৫, কাবের ৪৪*, স্নিমেন ৪০*; আল আমিন ৫/৪৫, তাইজুল ১/৩৮)।

ফল ॥ বাংলাদেশ ‘এ’ ৪ উইকেটে পরাজিত।