২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

অর্ধশত স্বেচ্ছাসেবীকে ছুটিতে ফেরত পাঠাচ্ছে জাপান

বিডিনিউজ ॥ বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে কর্মরত প্রায় ৫০ জন স্বেচ্ছাসেবীকে ‘চার সপ্তাহের ছুটিতে’ পাঠাচ্ছে জাপান। রংপুরে জাপানী নাগরিক হোশি কুনিও হত্যাকা-ের পর টোকিওর পরামর্শে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাপানের বৈদেশিক উন্নয়ন সংস্থা। তাদের ছুটিতে পাঠানোর বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢাকায় জাইকার এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেছেন, ‘এটা সাময়িক প্রত্যাবর্তন।’

বর্তমানে বাংলাদেশে কর্মরত ৭০ জন স্বেচ্ছাসেবীর মধ্যে ৪৮ জনকে জাপানে ফেরত পাঠানো হচ্ছে বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তা জানান। ৩ অক্টোবর রংপুরে মুখোশধারী দুর্বৃত্তরা গুলি চালিয়ে হত্যা করে জাপানী নাগরিক হোশি কুনিওকে। তার ছয় দিন আগে ঢাকার কূটনীতিক এলাকা গুলশানে একইভাবে খুন হন ইতালির নাগরিক সিজার তাভেলা।

স্বেচ্ছাসেবী কার্যক্রমের সঙ্গে যুক্ত জাইকার আরেকজন কর্মকর্তা জানান, ৪৮ জনের মধ্যে ৩১ জনকে মঙ্গলবার ছুটিতে পাঠানো হয় এবং বাকিদের ছুটি শুরু হবে বুধবার থেকে। এটাকে বাংলাদেশ থেকে জাপানী নাগরিকদের ‘সরিয়ে নেয়ার প্রক্রিয়ার অংশ’ মনে করার কোন কারণ নেই বলে তিনি মন্তব্য করেন। ছুটিতে পাঠানো কর্মীদের বেশিরভাগই রংপুর অঞ্চলের।

বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় দাতা দেশ জাপান ১৯৭৩ সাল থেকে স্বেচ্ছাসেবী পাঠিয়ে আসছে। এখন পর্যন্ত ১২শ’র বেশি স্বেচ্ছাসেবী বাংলাদেশে কাজ করে গেছে। তারা স্বাস্থ্য, শিক্ষা এবং পরিবেশসহ উন্নয়নের প্রায় সব শাখাতেই কাজ করেছেন। বাংলাদেশে জাইকার সহযোগিতা কর্মসূচীতে এই স্বেচ্ছাসেবীদের ‘সবচেয়ে উজ্জ্বল সম্ভাবনাময় চালিকাশক্তি’ হিসেবে বিবেচনা করে জাইকা।