২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

১০০ অর্থনৈতিক জোন

১০০ অর্থনৈতিক জোন
  • বেজার গবর্নিং বোর্ডের সভায় প্রধানমন্ত্রী বললেন বিনিয়োগ বাড়াতে এই উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে

বিডিনিউজ ॥ দেশী-বিদেশী বিনিয়োগ বাড়াতে পর্যায়ক্রমে ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার পরিকল্পনার কথা জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের গবর্নিং বোর্ডের বৈঠকে শেখ হাসিনা দেশে ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প গড়ে তোলার তাগিদ দিয়ে বলেন, অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠায় তার সরকার আরও নতুন নতুন এলাকা চিহ্নিত করছে।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সরকার প্রধানের সভাপতিত্বে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষের গবর্নিং বোর্ডের এটি ছিল তৃতীয় বৈঠক।

পরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের জানান, বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী দেশী-বিদেশী বিনিয়োগ বাড়াতে নতুন নতুন ধারণা নিয়ে কাজ করার ওপর গুরুত্ব দিয়েছেন।

‘অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠায় বিদ্যুত সংযোগ এবং যোগাযোগের ওপর গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, বিনিয়োগকারীরা প্রয়োজনে নিজ উদ্যোগে বিদ্যুত উৎপাদন করতে পারবে,’ বলেন তার প্রেস সচিব।

পরিবেশ রক্ষার ওপর গুরুত্বারোপ করে প্রধানমন্ত্রী প্রতিটি অর্থনৈতিক অঞ্চলে জলাধার থাকার আবশ্যকতার কথাও বলেছেন।

ইহসানুল করিম বলেন, দেশের নাগরিকদের ক্রয়ক্ষমতা বৃদ্ধি পাওয়ার কথা উল্লেখ করে অভ্যন্তরীণ বাজার সৃষ্টির পাশাপাশি আন্তর্জাতিক বাজারের চাহিদা নির্ধারণ করে উৎপাদনের পরামর্শও দেন প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা কৃষি প্রক্রিয়াজাত শিল্প গড়ে তোলার পাশাপাশি ক্ষুদ্র যন্ত্রাংশ রফতানি বাড়ানোর পরামর্শও দেন।

কর্মসংস্থান নিশ্চিত করতে শ্রমঘন শিল্প গড়ে তোলার ওপরও প্রধানমন্ত্রী জোর দেন।

শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, পূর্তমন্ত্রী মোশাররফ হোসেন, বেসরকারী বিমান চলাচল ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন, যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ, রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান, বিদ্যুত প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু প্রমুখ বৈঠকে অংশ নেন।