২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গ্রীসে শরণার্থীর সংখ্যা পাঁচ লাখে পৌঁছেছে

এ বছর গ্রীসে আগত অভিবাসীর সংখ্যা ৫ লাখে পৌঁছেছে। জাতিসংঘ হাইকমিশনার ফর রিফিউজি ইউএনএইচসিআর বলেছে, প্রতিদিনের অভিবাসী আগমনের সংখ্যা ৮ হাজারে পৌঁছেছে। অধিকাংশ অভিবাসী গ্রীস থেকে উত্তর দিকে রওনা হয়। ক্রোয়েশিয়া থেকে অভিবাসী প্রবেশের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় সেøাভেনিয়া সীমান্তে সেনা মোতায়েন করেছে। ২০১৫ সালে ইউরোপে অভিবাসীর সংখ্যা রেকর্ডসংখ্যক বেড়েছে। আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (্আইওএম) বলেছে, এ বছর এ পর্যন্ত অভিবাসীর সংখ্যা ৬ লাখ ৫০ হাজারে পৌঁছেছে। গত বছর অভিবাসীর সংখ্যা ছিল ২ লাখ ৮০ হাজার। ইউএনএইচসিআর বলেছে এ মাসে সাগর পথে আসা অভিবাসীদের সংখ্যা গত বছর অক্টোবরে অভিবাসীর সংখ্যার চেয়ে পাঁচগুণ বেড়েছে। সাগর পাড়ি দেয়ার সময় কমপক্ষে ৩ হাজার ১শ’ ৩৫ জন মারা গেছে। অথচ ২০১৪ সালে পুরো এক বছরে মারা গেছে ৩ হাজার ২শ’ ৭৯ জন। অভিবাসীদের অধিকাংশই তুরস্ক থেকে গ্রীস পৌঁছে। খবর বিবিসির।

ইউএনএইচসিআরের মুখপাত্র মেলিসা ফ্লেমিং বলেন ইইউ দেশগুলোর চুক্তির শর্ত হিসেবে জরুরীভাবে অভ্যর্থনা কেন্দ্র প্রতিষ্ঠার প্রয়োজন। তিনি বলেন, দৃশ্যত গ্রীস সাধ্যানুযায়ী করছে। হাঙ্গেরি নিরাপত্তার জন্য শুক্রবার রাতে দক্ষিণাঞ্চলীয় সীমান্ত বন্ধ করে দিয়েছে। ক্রোয়েশিয়া ও সেøাভেনিয়া অভিবাসী প্রবেশের ওপর কড়াকড়ি আরোপ করেছে। কিন্তু অনেক লোক ভেজা ও বাতাসের মধ্যে প্রতীক্ষা করতে থাকলে সোমবার কড়াকড়ি কিছুই শিথিল করা হয় বলে দৃশ্যত মনে হয়েছে।